আইভীর নির্বাচনী কাজের জন্য টাকা দাবি, ফোনালাপ ফাঁ’স

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে নৌকার প্রার্থী সেলিনা হায়াৎ আইভীর পক্ষে প্রচার চালানোর কথা বলেন মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক খোকন সাহা।

গত শনিবার এমন একটি অডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়। তবে শাপেবর হিসেবে দেখছেন মেয়র প্রার্থী আইভীর অনুসারীরা। ফাঁস হওয়া সেই অডিওতে শোনা যায়,

খোকন সাহা সোনারগাঁ উপজেলা যুবলীগের সভাপতি রফিকুল ইসলাম নান্নুর কাছ থেকে আইভীর নির্বাচনী কাজে খরচের জন্য ৫ লাখ টাকা দাবি করেছিলেন। সেখানে খোকন সাহাকে বলতে শোনা যায়, ‘সবকিছু ঠিক আছে। আমার একটু টাকাপয়সা লাগব।

তোমায় কিন্তু পরিষ্কারভাবে বলে দিই। তোমার পক্ষে কেউ নাই। তোমার নামের ওপর অনেকেই অনেক কথা কয়। আমি তো দলের কাজ করতেছি। আইভীকে পাস করানোর জন্য কাজ করতেছি। কালকে ৫ লাখ টাকা পাঠায় দিবা।’ খোকন সাহার দাবি করেন, ‘নান্নু আমার মক্কেল। আমার কাছে যথেষ্ট প্রমাণ আছে।

সে হয়তো অস্বীকার করে। তার পক্ষে-বিপক্ষে মামলা আমি করি। আমি তাঁর কাছে প্রচুর টাকা পাব। নির্বাচন উপলক্ষে আমার টাকার দরকার ছিল, তাই আমি বলেছি। তাও ঘটনা ১০-১২ দিন আগে। সে আমার মক্কেল ও ছোট ভাই। আমি তার কাছে চাইতেই পারি টাকা। মামলার ডকুমেন্ট আছে আমার কাছে।

এই ব্যক্তিগত ফোনালাপ ফাঁস করা অনৈতিক মনে করি। এই কাজ করে আমাদের দলের ভাবমূর্তি নষ্ট করার চেষ্টা চলছে।’ তবে খোকন সাহার দাবি পুরোপুরি অস্বীকার করেন রফিকুল ইসলাম নান্নু। তিনি বলেন, ‘ওনার কাছে কখনোই মক্কেল ছিলাম না আমি। উনি নির্বাচন করবেন, তাই চেয়েছেন। ওনার সঙ্গে আমার কোনো রাজনৈতিক সম্পর্ক নেই।

ছোট ভাই-বড় ভাই এমন কোনো যোগাযোগও নেই। উনি অনৈতিকভাবেই টাকা চেয়েছেন আমার কাছে।’ বিষয়টি নিয়ে গতকাল নারায়ণগঞ্জের আইভীর অনুসারী একাধিক নেতারা বলেন “এই অডিও ফাঁস নারায়ণগঞ্জের ভোটের রাজনীতিতে তেমন কোনো প্রভাব ফেলবে না। কারণ খোকন সাহা শুরু থেকেই আইভী বিরোধী হিসেবে পরিচিত।”

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *