গভীর রাতে প্রবাসী ছেলের বউয়ের রুমে ঢুকেই শ্বশুরের ঘুম হারাম

গভীর রাতে পুত্রবধূর রুমে প্রবেশ করেন গৃহকর্তা নূরুদ্দিন। কিন্তু ঢুকেই তার ঘুর হারাম হয়ে যায়। রাতের খাবার খেয়ে ঘুমাতে যাওয়া প্রবাসী ছেলের বউ সাজেদা (২৫) ঘর থেকে উধাও! তবে রুমের মালামাল ঠিকই রয়েছে।

রোববার মানিকগঞ্জের সিংগাইর পৌর এলাকার ২ নং ওয়ার্ডের আজিমপুর মহল্লায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় সাজেদার শ্বশুর নূরুদ্দিন নিখোঁজের অভিযোগ এনে থানায় সাধারণ ডায়রি করেছেন।

সাধারণ ডায়রি থেকে জানা যায়, নুরুদ্দিনের সৌদি আবর প্রবাসী ছেলে আবু বক্করের সঙ্গে সাজেদার সাত বছর আগে বিয়ে হয়। স্বামী প্রবাসে থাকলেও সাজেদা শ্বশুর বাড়িতে থাকতেন। অন্যান্য দিনের মতো শনিবার রাতে খাবার খেয়ে সাজেদা তার ঘরে ঘুমিয়ে পড়েন।

রাত ২টার দিকে গৃহকর্তা নূরুদ্দিন সাজেদার ঘরের দরজা খোলা দেখেন। ওই ঘরের সব মালামাল ঠিকঠাক থাকলেও শুধু ছেলের বউ ঘরে নেই। ছেলের বউয়ের চিন্তায় তিনি তার ঘুম হারাম! বর্তমানে ছেলের বউ সাজেদার ব্যবহৃত মোবাইল নম্বরটিও বন্ধ রয়েছে বলে নূরুদ্দিন জানান।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, গভীর রাতে উধাও হয়ে যাওয়ার পর সাজেদার বাবার বাড়িতেও খোঁজ নেয়া হয়। তিনি সেখানে যাননি। এমনকি নিকট আত্মীয়দের সঙ্গে যোগাযোগ করেও ছেলের পুত্রবধূর খোঁজ পাননি নূরুদ্দিন। তবে তিনি ধারণা করছেন পরকীয়ার কারণেই এমনটা ঘটেছে।

সাজেদার শ্বশুর বলেন, বেশ কয়েকমাস ধরেই বউমার গতিবিধি ভালো মনে হচ্ছিলো না। রাতে ঘণ্টার পর ঘণ্টা কথা বলতে দেখা যেত। এ বিষয়টা ছেলেকেও জানিয়েছি। কিন্তু শেষ পর্যন্ত বউমা উধাও হয়ে গেল। ছেলেকে ঘটনাটি জানানোর পর বললো দেশে এসে ব্যবস্থা নেবে। আপাতত বউমাকে খুঁজে পেলেই হলো। এ বিষয়ে সিংগাইর থানার ডিউটি অফিসার এসআই আশরাফুল আলম প্রবাসীর স্ত্রী নিখোঁজ হওয়ার বিষয়ে থানায় সাধারণ ডায়রি করার কথা নিশ্চিত করেছেন। এ বিষয়ে সিংগাইর থানার ডিউটি অফিসার এসআই আশরাফুল আলম প্রবাসীর স্ত্রী নিখোঁজ হওয়ার বিষয়ে থানায় সাধারণ ডায়রি করার কথা নিশ্চিত করেছেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *