ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় ইউপি নির্বাচনে নৌকার প্রতীক ছাড়াই ভোট যা বললেন আইনমন্ত্রী

নির্বাচনে জয় পরাজয় থাকবেই। পরাজয়ের শক্ত ভিত্তিই তৈরী করে দেবে কাঙ্খিত বিজয় অর্জনের প্রেরণা। অনেক প্রার্থী বলে থাকেন ফলাফল মেনে নেওয়ার মানসিকতা আছে। তবে বাস্তবতা ভিন্ন।

নতুন খবর হচ্ছে, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় ২৩ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিতব্য ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রতীক নৌকা বরাদ্দ হচ্ছে না বলে জানিয়েছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। আজ শনিবার দুপুরে আওয়ামী লীগের বিশেষ বর্ধিত সভায় ভার্চুয়ালি বক্তব্যকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা জানান।

এ সময় তিনি বলেন, মানুষের মনেরর কথা বুঝার চেষ্টা করে নৌকা প্রতীক বরাদ্দ না দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এ নির্বাচনের মধ্য দিয়ে জনগণের ইচ্ছার প্রতিফলন ঘটবে।

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৪ (কসবা-আখাউড়া) আসনের সংসদ সদস্য। বক্তব্যের সময় তিনি কসবাতেও নৌকা প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হবে না বলে জানান। পৌরসভা ভবনের তৃতীয় তলায় বিশেষ বর্ধিত সভায় মন্ত্রী এ কথা জানান।

উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক ও পৌর মেয়র তাকজিল খলিফা কাজলের সঞ্চালনায় এতে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক মো. জয়নাল আবেদীন। এতে নির্বাচনের প্রায় দেড় শতাধিক সম্ভাব্য প্রার্থী উপস্থিত ছিলেন।

খোঁজ নিয়ে ও স্থানীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, আগামী ২৩ ডিসেম্বর আখাউড়া উপজেলার পাঁচটি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন। নির্দেশনা

অনুযায়ী মঙ্গলবার আওয়ামী লীগের দলীয় ফরম সংগ্রহ করার শেষ দিন। তবে প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া না দেওয়া বিষয়ে এখন পর্যন্ত চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত না আসায় কেউ দলের ফরম সংগ্রহ করেননি। নেতাকর্মীরা জানান, আখাউড়াতে একটি অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন করার লক্ষ্যে দলের নীতি নির্ধারকরা শুরু থেকেই চাইছেন আওয়ামী লীগের প্রতীক ছাড়াই ভোট।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *