বাল্যবিয়ের শিকার সহ্য করতে না পেরে নববধূর আ’ত্মহ’ত্যা

চট্টগ্রামের বোয়ালখালী উপজেলায় শাকপুরা ইউনিয়নে বাল্যবিয়ের শিকার নিগার সুলতানা (১৬) নামের এক নববধু আত্মহত্যা করেছেন। বিয়ের মাত্র দুই মাসের মাথায় তিনি মারা গেলেন।

বুধবার (২৯ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় বোয়ালখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমেপ্লেক্স থেকে নিগার সুলতানার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। বোয়ালখালী থানার অফিসার আবদুল করিম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশ ও নিহতের পারিবার সূত্রে জানা যায়, নিগার সুলতানা বোয়ালখালী শাকপুরা পাইলট প্রবর্তক কন্যা বিদ্যাপিটের ৯ শ্রেণির ছাত্রী ছিলেন। দুই মাস আগে

অনুমতি না নিয়ে পরিবারের সদস্যরা নিগার সুলতানাকে একই উপজেলার পশ্চিম গোমদন্ডি মহল্লা চৌধুরী বাড়ির হেলালের সঙ্গে বিয়ে দেয়। বুধবার সন্ধ্যার দিকে নিগার সুলতানা বাড়ির অন্য সদস্যদের না জানিয়ে নিজ কক্ষের দরজা লাগিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন।

তারা আরো জানান, দীর্ঘক্ষণ দরজা না খোলায় পরিবারের সদস্যরা দরজা ভেঙে নিগারের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার করে। পরে তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়। এই সময় কর্তব্যরত চিকিৎসক নিগার সুলতানাকে মৃত ঘোষণা করেন। খবর পেয়ে বোয়ালখালী থানা পুলিশ হাসপাতালে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে।

বোয়ালখালী থানার অফিসার আবদুল করিম জানান, কি কারণে নিগার আত্মহত্যা করেছে বা তার মৃত্যুর অন্যকোন কারণ আছে কি-না তা তদন্ত করে দেখা হবে। এই ঘটনায় থানায় অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *