ব্রেকিং নিউজঃ যেভাবে কক্সবাজার সৈকত থেকে আটক করা হলো ইকবালকে

কুমিল্লার পূজামণ্ডপে পবিত্র কোরআন শরিফ রাখার ঘটনায় অভিযুক্ত ইকবাল হোসেন সন্দেহে কক্সবাজারে একজনকে আটক করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার (২১ অক্টোবর) রাত সাড়ে ১০টার দিকে

কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গ্রেপ্তার করার পর তাকে রাতেই কুমিল্লা পুলিশের হাতে তুলে দেওয়ার প্রস্তুতি চলছে। কক্সবাজারের স্থানীয় সাংবাদিকদের এটা নিশ্চিত করেছেন জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রফিকুল ইসলাম।

জানা গেছে, নোয়াখালী থেকে আসা একদল পর্যটক সৈকতের সুগন্ধা পয়েন্টে ইকবালকে দেখে সন্দেহজনকভাবে ধরে ফেলেন। পরে সাড়ে ১০টার দিকে তাকে জেলা পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়। জেলা পুলিশের কর্মকর্তারা বলেছেন,

আটক ব্যক্তি ইকবাল কি-না তা শতভাগ নিশ্চিত করবে কুমিল্লার পুলিশ। ইকবালকে গ্রেপ্তার করা নিয়ে কুমিল্লার পুলিশ সুপার ফারুক আহ‌মেদ গণমাধ্যমকে বলেন, কক্সবাজারে ইকবাল হোসেন নামে একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে, এটা প্রধান সন্দেহভাজন ইকবাল কি না, তা যাছাই করা হচ্ছে।

এর আগে সিসিটিভি ফুটেজ দেখে দায়ী ব্যক্তি ইকবাল হোসেনকে শনাক্ত করে পুলিশ। সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে শনাক্ত ওই যুবক কুমিল্লা নগরীর সুজানগর এলাকার নূর আহাম্মদ আলমের ছেলে ইকবাল হোসেন (৩৫) এবং সে বিভিন্ন মাজারে ও যত্রতত্র ঘুরে বেড়ানো (ভবঘুরে) হিসেবে পরিচিত। বুধবার রাতে জেলা পুলিশের দায়িত্বশীল একটি সূত্র এ বিষয়টি নিশ্চিত করে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *