ভাসানীর মেয়েকে যা বললেন খালেদা জিয়া

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে দেখতে শুক্রবার (২৬ নভেম্বর) সকালে হাসপাতালে গেছেন মওলানা হামিদ খান ভাসানীর মেয়ে মাহমুদা খানম ভাসানীসহ পরিবারের পাঁচ সদস্য। সেখানে প্রায় ৩০ মিনিট ছিলেন তারা।

খালেদা জিয়াকে দেখে বেরিয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেছেন মাহমুদা খানম ভাসানী। তিনি বলেন, খালেদা জিয়া রো’গমুক্তির জন্য সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন।

মাহমুদা খানম বলেন, বিএনপির নেত্রী কথা বলতে পারছেন, তবে খুব ধীরে ধীরে। তিনি খুবই দু’র্বল। তার স’ঙ্গে কথা হলে তিনি সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন।

এ সময় খালেদা জিয়ার শারীরিক অ’বস্থা বিবেচনা করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে তাকে বিদেশে পাঠিয়ে সুচিকিৎসার সুযোগ দেওয়ার জোর দাবি জানান তিনি।

ভাসানীর নাতি হাবিব হাসান মনার বলেন, আমরা বেগম জিয়াকে দেখতে গিয়েছিলাম। তার ডাক্তাররা বলেছেন, বেগম জিয়ার অ’বস্থা খারাপ। তাকে বিদেশে নিয়ে চিকিৎসা দেওয়ার দাবি জানাই ভাসানী পরিবারের পক্ষ থেকে।

এ সময় উ’পস্থিত ছিলেন- ভাসানীর বড় মেয়ে রিজিয়া, ছোট মেয়ে মাহমুদা খানম, নাতনি সুরাইয়া সুলতানা এবং দুই নাতি হাবিব হাসান মনার ও মাহমুদুল হক শানু।

এ ছাড়া বিএনপি চেয়ারপারসনের ছোট ছেলে আরাফাত রহমান কোকোর স্ত্রী শর্মিলা রহমান, বিশেষ সহকারী শামসুর রহমান শিমুল বিশ্বাস, ব্যক্তিগত চিকিৎসক অধ্যাপক ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন, যুবদলের সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাহ উদ্দিন টুকু, চেয়ারপারসনের মিডিয়া উইংয়ের সদস্য শামসুদ্দিন দিদার উ’পস্থিত ছিলেন। উল্লেখ্য, গত ১৩ নভেম্বর থেকে রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন খালেদা জিয়া। দলের পক্ষ থেকে বারবার বলা হচ্ছে, খালেদা জিয়া গুরুতর অসুস্থ। তিনি জীবন-মৃ’ত্যুর স’ন্ধিক্ষণে আছেন। দেশের বাইরে তার চিকিৎসা করাটা খুব জ’রুরি। কিন্তু সরকারের অনুমতি না পাওয়ায় সেটা সম্ভব হচ্ছে না।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *