যে কারণে পেছাল ইউপি নির্বাচন

চতুর্থ ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন তিন দিন পিছিয়েছে নির্বাচন কমিশন। এ ধাপে ২৩ ডিসেম্বর ভোট হওয়ার কথা থাকলেও তা হবে ২৬ ডিসেম্বর।

আজ মঙ্গলবার (২৩ নভেম্বর) সন্ধ্যায় ভোটের দিন পরিবর্তনের সিদ্ধান্তের কথা সংবাদ মাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের অতিরিক্ত সচিব অশোক কুমার দেবনাথ।

তিনি বলেন, ২৩ ডিসেম্বর এইচএসসির গুরুত্বপূর্ণ দুটি পরীক্ষা থাকায় শিক্ষামন্ত্রণালয় থেকে কমিশনকে বিষয়টি বিবেচনায় নিতে অনুরোধ করা হয়েছে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অনুরোধ বিবেচনায় নিয়ে কমিশন ভোটের তারিখ পেছানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তিনি জানান, ভোটের দিন পরিবর্তন হলেও অন্যান্য নির্বাচনের সূচিতে কোনো পরিবর্তন আসেনি।

উল্লেখ্য, ১০ নভেম্বর চতুর্থ ধাপে ৮৪০ ইউনিয়ন পরিষদ ও তিন পৌরসভায় ২৩ ডিসেম্বর ভোটের দিন নির্ধারণ করে তফসিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন।

চতুর্থ ধাপে ২৫ নভেম্বর পর্যন্ত মনোনয়নপত্র জমা দিতে পারবেন প্রার্থীরা। ২৯ নভেম্বর হবে মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই। ৩০ নভেম্বর থেকে ২ ডিসেম্বর পর্যন্ত আপিল করার সুযোগ পাবেন প্রার্থীরা। ৩ থেকে ৫ ডিসেম্বর প্রার্থীদের আপিল নিষ্পত্তি করবে ইসি।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *