২৬ দিন পর জামিন পেয়ে যা জানালো পরীমনি’র আইনজীবী

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের মামলায় আলোচিত চিত্রনায়িকা পরীমনির জামিন আবেদন মঞ্জুর করেছেন আদালত। আজ মঙ্গলবার (৩১ আগস্ট)

ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কে এম ইমরুল কায়েশ শুনানি শেষে তার জামিন মঞ্জুর করেন। এদিকে পরীমনির জামিন মঞ্জুর হওয়ার পর গণমাধ্যমের সাথে কথা বলেছেন এই চিত্রনায়িকার আইনজীবী মজিবুর রহমান।

মজিবুর রহমান বলেন, আমরা আজকে মহানগর ডিপো দায়রা জজ আদালতে পরীমনির জামিন দেয়ার জয় আবেদন করেছিলাম। এসময় আমরা আদালতে বলেছিলাম যেহেতু আসামি একজন মহিলা,

তার নাম আছে, বিদেশে তার পরিচিতি আছে এছাড়া তিনি অনেকগুলো সিনেমার সাথে যুক্ত আছেন। জেলে থাকার ফলে তার সিনেমার সিডিউল নষ্ট হচ্ছে। তাই এগুলাকে (সিনেমা) বাঁচানো জন্য আমরা তার জামিন চেয়েছিলাম।

তিনি বলেন, আপনারা জানেন দেশে আইন আছে, আইনের বিচার আছে। যেহেতু জেলহাজতে পরীমনির স্বাস্থ্য খারাপ হয়ে যাচ্ছিল এবং তিন দফায় রিমান্ড শেষেও তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগগুলোর সুনির্দিষ্ট প্রমাণ পাওয়া যায়নি, তাই সবকিছু বিবেচনা করে আদালত শেষ পর্যন্ত এই জামিন আবেদন মঞ্জুর করেছেন।

তিনি আরও বলেন, আপানারা জানেন, পরীমনির বিরুদ্ধে আজকের যে মামলা তা শুধু মাদক মামলা নয়। এখানে তার উপর এলএসডি’র মতো অভিযোগ আনা হয়েছে।

তাই আমরা অনেক সূক্ষ্মভাবে এই মামলা নিয়ে কাজ করছি।এর আগে, রোববার (২৯ আগস্ট) উচ্চ আদালতের নির্দেশে ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কে এম ইমরুল কায়েশ পরীমনির জামিন শুনানির জন্য ৩১ আগস্ট দিন ধার্য করেন।

গত ২২ আগস্ট ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কে এম ইমরুল কায়েশের আদালতে পরীমনির জামিন আবেদন করেছিলেন তার আইনজীবী মজিবুর রহমান। তখন আদালত শুনানির জন্য ১৩ সেপ্টেম্বর দিন ধার্য করেছিলেন।

পরে তার আইনজীবীরা এ নিয়ে হাইকোর্টে আবেদন করেন। গত ৪ আগস্ট সুনির্দিষ্ট তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে পরীমনিকে তার বনানীর বাসা থেকে আটক করে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। আটকের দীর্ঘ ২৬ দিন পর জামিন পেলেন এই অভিনেত্রী।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *