মির্জা ফখরুলের বিরুদ্ধে বিএনপির দুই নেতার মামলা

মির্জা ফখরুলের বিরুদ্ধে বিএনপির দুই নেতার মামলা

রাজনীতি: ফেনী সদর উপজেলার মোটবী ও ফরহাদনগর ইউনিয়নে

গঠনতন্ত্র পরিপন্থী আহবায়ক কমিটি ঘোষণা করার অভিযোগে আদালতে মামলা দায়ের করা হয়েছে। বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ ৯ জনের বিরুদ্ধে

এ মামলা দায়ের করা হয়। বিএনপি নেতা ইসমাইল হোসেন ভূঁইয়া ও আবুল হোসেন কমান্ডার বাদী হয়ে সোমবার সিনিয়র সহকারী জজ আদালতে মামলাটি দায়ের করেন। মামলার অপরাপর আসামীরা হলেন চট্টগ্রাম বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক

মাহবুবের রহমান শামীম, জেলা বিএনপির আহবায়ক শেখ ফরিদ বাহার ও সদস্য সচিব আলাল উদ্দিন আলাল, ফেনী সদর উপজেলা বিএনপির আহবায়ক ফজলুর রহমান বকুল, সদস্য সচিব আমান উদ্দিন কায়সার সাব্বির,

সদর উপজেলা বিএনপির সদস্য ৮ ইঞ্জিনিয়ার সাইফুল হক, জেলা বিএনপির সদস্য ও নবগঠিত ফরহাদনগর ইউনিয়ন বিএনপির আহবায়ক বেলায়েত হোসেন বাচ্চু, মোটবী ইউনিয়ন বিএনপির নবগঠিত কমিটির আহবায়ক এডভোকেট মোশারফ হোসেন মানিক।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, ১৫ ফেব্রুয়ারি ফেনী সদর উপজেলার মোটবী ইউনিয়ন বিএনপির ২১ সদস্য বিশিষ্ট আহবায়ক কমিটির ঘোষণা করা হয়। মোটবীতে এডভোকেট মোশারফ হোসেন মানিক আহবায়ক

ইসমাইল হোসেন ভূঁইয়া ১নং যুগ্ম আহবায়ক মহি উদ্দিন আহাম্মেদ ও হারুন মেম্বার এবং শাহ আলমকে সদস্য সদস্য বিশিষ্ট কমিটির আহবায়ক, সদস্য সচিব ও তিন জনের সাইনিং ক্ষমতা দেয়া হলেও পরবর্তীতে তা প্রতাহার করে আহবায়ক ও সদস্য সচিবকে সাইনিং ক্ষমতা দেয়া হয়।

একইভাবে মহানগর ইউনিয়দেরও জেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটির সদস্য বেলায়েত হোসেন কে আহবায়ক, ১নং যুগ্ম আহবায়ক আবুল হোসেন কমান্ডার, যুগ্ম আহবায়ক জয়নাল আবেদিন ও নূরুল আলম খনকার এবং সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলম করে ২১ সদস্য বিশিষ্ট আহবায়ক কমিটি ঘোষণা করা হয়।

আহবায়ক সদস্য সচিব ও ১নং যুগ্ম আহবায়ক সহ তিন জনের সাইনিং ক্ষমতা দেয়া হলেও পরবর্তীতে তা প্রত্যাহার করে আহবায়ক ও সদস্য সচিবকে সাইনিং ক্ষমতা দেওয়া হয়। কমিটি ঘোষণার একদিন পর ১৬ ফেব্রুয়ারি ইঞ্জিনিয়ার সাইফুল সাক্ষরিত প্যাডে জানানো হয় উভয় কমিটির ১নং যুগ্ম আহবায়কের সাইনিং ক্ষমতা বাদ দেওয়া হয়েছে।


Leave a Reply

Your email address will not be published.