তিন ঘণ্টা ব্যাপী অলি-রবের বৈঠক, আলোচনা হলো যে বিষয়ে

তিন ঘণ্টা ব্যাপী অলি-রবের বৈঠক, আলোচনা হলো যে বিষয়ে

রাজনীতি: জাতীয় সরকারের রূপরেখা নিয়ে লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি-এলডিপির সভাপতি ড. কর্নেল (অব.) অলি আহমদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জেএসডির সভাপতি আ স ম আবদুর রব।

রোববার রাতে অলির মহাখালীর ডিওএইচএসের বাসায় ওই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। রাত ৮টা থেকে তিন ঘণ্টা ব্যাপী ওই বৈঠকে চলমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি ও জাতীয় ঐক্যের বিষয়েও আলোচনা করেন এই দুই নেতা।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন- এলডিপির মহাসচিব ড. রেদোয়ান আহমেদ ও জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জেএসডি) সহ-সভাপতি তানিয়া রব। সূত্র জানায়, কয়েক বছর ধরে নানা ইস্যুতে একসঙ্গে

আন্দোলন কর্মসূচি পালন করলেও দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে ‘সরকার ব্যবস্থা’ নিয়ে সরকার বিরোধী জোটে মতবিরোধ দেখা দিয়েছে। বিএনপিসহ কয়েকটি দল নির্বাচনকালীন নির্দলীয় ও নিরপেক্ষ সরকারের দাবি জানালেও

তাদের সঙ্গে একমত নন জোটের একাধিক শরিক। জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের অন্যতম শরিক আ স ম আবদুর রবের জেএসডি ও ২০ দলের অন্যতম শরিক কর্নেল (অব.) ড. অলি আহমদের এলডিপিসহ কয়েকটি দল জাতীয় সরকারের পক্ষে।

এ দুই ফর্মুলা নিয়েই জোটের মধ্যে বিরোধ চলছে। এটা নিরসনে বিকল্প হিসেবে ‘অন্তর্বর্তীকালীন সরকারের’ প্রস্তাব নিয়েও কাজ করছেন বিএনপি ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের গুরুত্বপূর্ণ তিন নেতা। এরই মধ্যে এ ইস্যুতে আ স ম রব ও অলি আহমদের এই বৈঠক নিয়ে

বিএনপির সঙ্গে জোটের কয়েকটি দলের বিরোধ এখন প্রকাশ্য হলো বলে মনে করছেন অনেকে। জাতীয় সরকারের রূপরেখা নিয়ে বৈঠকে আলোচনা হয়েছে জানিয়ে এলডিপির মহাসচিব ড. রেদোয়ান আহমেদ বলেন,

সরকার সব রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠানকে নৈতিকভাবে ধ্বংস করে দিয়েছে। সব প্রতিষ্ঠানকে অক্ষম-অকার্যকর করার পথ তৈরি করছে। বিদ্যমান অবৈধ সরকারের পতনের মাধ্যমে বিপন্ন রাষ্ট্রকে সাংবিধানিক চেতনায় পুনঃপ্রতিষ্ঠাসহ জাতীয় ঐক্যের রাজনীতির অনুসন্ধান করতে হবে। নৈতিক ও মানবিক রাষ্ট্র বিনির্মাণে আমাদের দীর্ঘ পথ পাড়ি দিতে হবে। সময়ক্ষেপণ না করে অবিলম্বে এসব প্রস্তাবনা নিয়ে রাজনৈতিক দল, পেশাজীবী, বুদ্ধিজীবীদের সঙ্গে ব্যাপক সংলাপ-প্রক্রিয়া চালু করতে হবে। সমাজের মধ্যে থেকেই রাজনীতিতে গুণগত পরিবর্তন, সমাজ উপযোগী শাসন ব্যবস্থার রাজনৈতিক প্রস্তাবনা চ‚ড়ান্ত করা হবে বলেও তিনি জানান। বৈঠক সম্পর্কে জানতে চাইলে জেএসডির সহ-সভাপতি তানিয়া রব বলেন, এটি কোন আনুষ্ঠানিক বৈঠক ছিল না। অলি আহমদের জন্মদিন উপলক্ষে আমরা শুভেচ্ছা জানাতে গিয়েছিলাম। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, সেখানে জাতীয় সরকারসহ বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়েও আলোচনা হয়েছে। এছাড়াও দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতি, সার্চ কমিটির মাধ্যমে যে নতুন নির্বাচন কমিশন গঠিত হয়েছে এসব নিয়েও আলোচনা করেছি আমরা।


Leave a Reply

Your email address will not be published.