আকাশ থেকে খাড়াভাবে যেভাবে বিধ্বস্ত হয় চীনা বিমানটি

আকাশ থেকে খাড়াভাবে যেভাবে বিধ্বস্ত হয় চীনা বিমানটি

চীনের ইস্টার্ন এয়ারলাইন্সের একটি যাত্রীবাহী বিমান ১৩২ জন আরোহী নিয়ে বিধ্বস্ত হয়েছে৷ দেশটির দক্ষিণ-পশ্চিম পাহাড়ে বিধ্বস্ত হওয়া বিমানটির শেষ

মুহূর্তের ভিডিওতে দেখা যায় আকাশ থেকে বিমানটি একেবারে খাড়াভাবে অর্থাৎ বিমানের সামনের অংশ নিম্নমুখী এবং পেছনের অংশ আকাশের দিকে থাকা

অবস্থায় অত্যন্ত দ্রুতগতিতে বিধ্বস্ত হয় চিনের যাত্রিবাহী বিমান সংস্থা চায়না ইস্টার্ন প্যাসেঞ্জারে বোয়িং ৭৩৭। দুর্ঘটনাগ্রস্ত বিমানটির ১৩৩ জন যাত্রী এবং বিমানকর্মীর কাররই বেঁচে থাকার সম্ভাবনা নেই বলে মনে করছে সে দেশটির গণমাধ্যম।

চায়না এভিয়েশন রিভিউ নামের একটি টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে বিমান বিধ্বস্তের একটি ভিডিও টুইট করা হয়েছে। ১৭ সেকেন্ডের এই ভিডিও টুইটে বলা হয়েছে,

এমইউ ৫৭৩৫ বিমানের শেষ সেকেন্ড। এটি পাহাড়ে বিধ্বস্ত হওয়ার আগে ব্যাপক গতিতে বিমানটির নাক বরাবর বিধ্বস্ত হওয়ার ভিডিও বলে দাবি করেছে চায়না এভিয়েশন রিভিউ।

বিমানটি মাত্র ১ মিনিটি ৩৬ সেকেন্ডের ব্যবধানে ২৯ হাজার ১০০ ফুট উচ্চতা ৩ হাজার ২২৫ ফুট উচ্চতায় নেমে আসে। এর পরপরই বিমানটির সঙ্গে সব ধরনের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। সোমবার সন্ধ্যায় চিনের প্রেসিডেন্ট শি চিনফিং দুর্ঘটনার পূর্ণাঙ্গ তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন।

চিনের সিভিল অ্যাভিয়েশন অ্যাডমিনিস্ট্রেশন জানিয়েছে, বোয়িং ৭৩৭ বিমানটি সোমবার সকালে কুনমিং শহর থেকে গুয়াংঝু যাওয়ার পথে গুয়াংজি অঞ্চলের উওঝোউ শহরের কাছে এয়ার ট্র্যাফিক কন্ট্রোলের সঙ্গে যোগাযোগ হারিয়ে ফেলে। কিছুক্ষণের মধ্যেই খবর মেলে, উঝোউয়ের কাছে টেং কাউন্টিতে পাহাড়ে আছড়ে পড়ার পরেই বিমানটিতে আগুন ধরে গিয়েছে। ওই খবরে বলা হয়েছে, উদ্ধারকর্মীরা ধ্বংস হওয়া বিমানের কাছে পৌঁছলে কোনও আরোহীর বেঁচে থাকার চিহ্ন খুঁজে পাননি।


Leave a Reply

Your email address will not be published.