ইউক্রেনের পক্ষে ভোট দেওয়ার কারণ জানালেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী


জাতীয়: কারো চাপে নয় বরং মানবাধিকার ইস্যুতে জাতিসংঘের প্রস্তাবে ইউক্রেনের পক্ষে বাংলাদেশ ভোট দিয়েছে

বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন। ইউক্রেনে রাশিয়ার আগ্রাসন নিয়ে নিজেদের অবস্থান পরিষ্কার করেছে বাংলাদেশ। ভোট দিয়েছে রাশিয়ার বিপক্ষে।

ইউক্রেনে রুশ আগ্রাসন বন্ধে জাতিসংঘের প্রথম প্রস্তাবের পক্ষে ১৪১টি দেশ ভোট দিয়েছিল। তবে সে সময় বাংলাদেশসহ ৩৫টি দেশ ভোট দেওয়া থেকে বিরত ছিল। তবে এবার

ইউক্রেনের পক্ষে ভোট দিয়েছে বাংলাদেশ। বৃহস্পতিবার নিউইয়র্কে জাতিসংঘ সদর দপ্তরে সাধারণ পরিষদের বিশেষ জরুরি অধিবেশন একটি প্রস্তাব ১৪০ ভোটে পাস হয়।

১৪০ দেশের মধ্যে ছিল বাংলাদেশ। ভারত, চীন ও পাকিস্তানসহ ৩৮টি দেশ ভোটদানে বিরত থাকে। আর প্রস্তাবের বিপক্ষে ভোট দিয়েছে রাশিয়া, বেলারুশ, উত্তর কোরিয়া,

ইরিত্রিয়া ও সিরিয়া। ইউক্রেনের পক্ষে ভোট দেওয়ার বিষয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, কারো চাপে নয়, মানবাধিকার ইস্যুতে জাতিসংঘের প্রস্তাবে ইউক্রেনের পক্ষে বাংলাদেশ ভোট দিয়েছে।

ওই প্রস্তাবের লক্ষ্য ছিল রাশিয়ার সমালোচনা করা, যুদ্ধ বন্ধ করা নয়। তিনি আরও বলেন, আপনি যদি প্রস্তাবটা পড়েন, দেখবেন যে সেখানে যুদ্ধের অবসান চাওয়া হয়নি। ওটা ছিল কাউকে দোষারোপ করার জন্য।

আমরা শান্তি চাই, সে জন্য আমরা যুদ্ধ চাই না। যুদ্ধের বিরুদ্ধে আমরা। যুদ্ধের সপক্ষে আমরা ভোট দিইনি। এএফপি ও ইউএন নিউজ জানিয়েছে, বুধবার ইউক্রেনের মানবিক পরিস্থিতি নিয়েও রাশিয়া নিরাপত্তা পরিষদে একটি প্রস্তাব উত্থাপন করে। তবে সেটি গৃহীত হয়নি।


Leave a Reply

Your email address will not be published.