দুই সন্তান রেখে উধাও গৃহবধূ, অতঃপর যা করলেন স্বামী!

দুই সন্তান রেখে উধাও গৃহবধূ, অতঃপর যা করলেন স্বামী!

সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে ১২দিন ধরে দুই সন্তানের জননী নিখোঁজ রয়েছেন। ১০মার্চ সন্ধ্যা ৭টার দিকে স্বামী ও দুই সন্তান রেখে অজানা উদ্দেশ্যে পাড়ি জমিয়েছেন ওই গৃহবধূ। দিরাই পৌরসভার দাউদপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় নিখোঁজ নারীর স্বামী দিরাই থানায় সাধারণ ডায়রি করেছেন। জানা যায়, দাউদপুর গ্রামের মৃত আব্দুল মতলিবের ছেলে আব্দুছ আলীর (৫২) সঙ্গে সিলেটের জালালাবাদ উপজেলার কান্দিগাঁও ইউনিয়নের

এনাতাবাদ গ্রামের ওয়াতির আলীর মেয়ে জনি বেগমের (৩০) পারিবারিকভাবে বিবাহ হয়। ১৩ বছরের সংসারে নয়ন আহমেদ নীরব (১০) ও আনিশা আক্তার মুন্নি (৬) নামে দুই সন্তান রয়েছে তাদের।

অবুঝ শিশুদের নিয়ে বিপাকে পেশায় মোটরসাইকেল চালক আব্দুছ আলী বলেন, বছরখানেক আগে আমার স্ত্রীর আচরণ বদলে যায়। সে সারাক্ষণ ভিন্ন পুরুষের সাথে ফোনে কথা বলতো।

আমি তাকে অনেক বুঝিয়েছি। সে শুনেনি। কিছুদিন পূর্বে তার ব্যবহৃত ফোনটি আমি আচঁড়ে ভেঙে ফেলি। এরপর থেকে আমার সাথে কথা বলা বন্ধ করে দেয়। কান্না জড়িত কন্ঠে তিনি বলেন,

আমার বাচ্চাদের জন্য আমার স্ত্রীকে আমি ফেরত চাই। এজন্য প্রশাসনের সহযোগিতা কামনা করেন তিনি। দিরাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আজিজুর রহমান বলেন, নিখোঁজ গৃহবধূর সন্ধান পেতে পুলিশ সর্বাত্মক চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।


Leave a Reply

Your email address will not be published.