মনে রাখবেন, রাজনীতি জনগণের কল্যাণের জন্য, নেতা হয়ে ভাব ধরার জন্য নয়!

মনে রাখবেন, রাজনীতি জনগণের কল্যাণের জন্য, নেতা হয়ে ভাব ধরার জন্য নয়!

সব ধরনের নেতিবাচক কর্মকাণ্ড পরিহার করে মিলেমিশে রাজনীতি করার জন্য সকল রাজনৈতিক দলের সদস্যদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। তিনি বলেন,

জনগণের সার্বিক কল্যাণের জন্য নির্বাচিত প্রতিনিধি বা নেতা হিসেবে সবাইকে কাজ করতে হবে। মঙ্গলবার (২৯ মার্চ) কিশোরগঞ্জের অষ্টগ্রাম উপজেলায় রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ অডিটোরিয়ামে বিভিন্ন পেশাজীবী সংগঠনের সদস্য

ও স্থানীয় কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে এ কথা বলেন। এসময় রাষ্ট্রপ্রধান আরও বলেন, ক্ষমতা ও রাজনীতি জনগণের কল্যাণের জন্য। নেতা হয়ে ভাব ধরার জন্য নয়। জনগণের ভালোর জন্য সবাইকে (রাজনীতিবিদদের) ছাড় দিতে হবে।

নিজের রাজনৈতিক জীবনের উদাহরণ টেনে রাষ্ট্রপতি বলেন, প্রতিদ্বন্দ্বিতা ছিল কিন্তু বিজয়ী হওয়ার পরে প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থীর গলায়ই মালা দিয়েছি। তাদের পরিবার ও সন্তানদের জন্য কাজ করেছি। আবদুল হামিদ স্থানীয় প্রশাসন, পুলিশ,

জনপ্রতিনিধি ও জনগণসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে স্থানীয় উন্নয়নে সম্মিলিতভাবে কাজ করার আহ্বান জানান। রাষ্ট্রপতি হামিদ বলেন, এলাকার উন্নয়নের জন্য শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখা অতীব গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। শান্তি-শৃঙ্খলা না থাকলে উন্নয়ন হবে না।

ধনী হওয়ার জন্য রাজনীতি করিনি। হাওরের উন্নয়ন, জনগণের জীবনযাত্রার মান উন্নয়নের জন্য কাজ করেছি। ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য কারিগরি শিক্ষার ওপর গুরুত্বারোপ করে রাষ্ট্রপতি বলেন, বর্তমান সময়ে টেকনিক্যাল শিক্ষা অতীব প্রয়োজন। তিনি বলেন,

বর্তমানে চাকরির বাজার খুবই প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ। কারিগরি শিক্ষার মাধ্যমে ঘরে বসেই অর্থ উপার্জনের সুযোগ রয়েছে। তিনি শিক্ষার্থীদের সাধারণ শিক্ষার পাশাপাশি কারিগরি শিক্ষায় দক্ষতা অর্জনের উপদেশ দেন। এর আগে বিকেলে রাষ্ট্রপতি হামিদ অষ্টগ্রাম উপজেলার ‘বাহাদুর সেতু’ এবং ‘রাষ্ট্রপতি মোহাম্মদ আবদুল হামিদ সেতু’ সহ কয়েকটি উন্নয়ন প্রকল্প পরিদর্শন করেন।


Leave a Reply

Your email address will not be published.