কামাল-জাফরুল্লাহদের মতের বিপক্ষে বিএনপি, যা জানালেন ফখরুল

কামাল-জাফরুল্লাহদের মতের বিপক্ষে বিএনপি, যা জানালেন ফখরুল

নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচনের পর তারা জাতীয় সরকার গঠন করতে চায় বিএনপি- দলের এই অবস্থান জানিয়ে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন,

‘আমরা নির্বাচন চাই নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে। সেই নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন করার পরে যারা আন্দোলন করেছে, তাদের নিয়ে একটা জাতীয় সরকার গঠন করব।

এটা আমাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান সাহেব বলেছেন। বুধবার নয়া পল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক যৌথসভা শেষে দুপুরের পর এক সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি মহাসচিব এসব কথা বলেন।

সরকারবিরোধী রাজনৈতিক দলগুলোর অবস্থান হচ্ছে আগামী দ্বাদশ সংসদ নির্বাচন হতে হবে জাতীয় সরকার গঠনের মাধ্যমে। আ স ম আব্দুর রবের জেএসডি, ঐক্যফ্রন্টের উদ্যোক্তা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী এবং

ড. কামাল হোসেনের দল গণফোরামও জাতীয় সরকারের পক্ষে তাদের অবস্থান স্পষ্ট করেছে। তারা চায়, আগামী নির্বাচন হতে হবে জাতীয় সরকারের অধীনে।

ইতোমধ্যে জেএসডি একটি জাতীয় সরকারের প্রস্তাবও উপস্থাপন করেছে। তবে নির্বাচনকালীন জাতীয় সরকারের বিপক্ষে অবস্থান বিএনপির। দলটি চায়, নির্বাচন হতে হবে নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে।

দলের অবস্থান স্পষ্ট করে বিএনপি মহাসচিব আজ সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘এই সরকার যে সমস্যার সৃষ্টি করেছে। একমাত্র হতে পারে যদি সত্যিকার অর্থেই একটা নিরপেক্ষ সরকার গঠিত হয় এবং তার অধীনে যদি একটা অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন হয়।

তাহলেই শুধু দেশের চলমান সমস্যার সমাধান হতে পারে।সেই কারণেই আমাদের দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান সাহেবে খুব স্পষ্ট করে বলেছেন যে, আমরা একটা নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে এখন নির্বাচন চাই এবং সেই নির্বাচনের পরে আমরা সবাইকে নিয়ে একটা জাতীয় সরকার গঠন করার মধ্য দিয়ে বিরাজমান সব সমস্যার সমাধান করতে চাই।’


Leave a Reply

Your email address will not be published.