উপহারের প্যাকেটে আ.লীগ নেতাকে পাঠানো হলো সাপ! অতঃপর ঘটলো কাণ্ড

উপহারের প্যাকেটে আ.লীগ নেতাকে পাঠানো হলো সাপ! অতঃপর ঘটলো কাণ্ড

ফরিদপুরের নগরকান্দা উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি এবং রামনগর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান কাইমুদ্দিন মণ্ডলের দোকানে উপহারের প্যাকেটে সাপ পাঠানো হয়েছে।

সোমবার (২৮ মার্চ) বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে ফরিদপুর সদরের গজারিয়া বাজারে এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গজারিয়া বাজারে কাইমুদ্দিন মণ্ডলের ঢেউটিন বিক্রির দোকান আছে। আজ বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে সাপভর্তি প্যাকেট

নিয়ে ওই দোকানে আসেন এক ভ্যানচালক। তিনি উপহারের প্যাকেটটি দোকানের কর্মচারী শ্যামল কুমার বিশ্বাসের (৩৫) হাতে তুলে দেন। শ্যামল কুমার উপহারের প্যাকেটটি খুলে ভেতরে একটি দইয়ের হাঁড়ি এবং তার নিচে সাপ দেখতে পান। এতে তিনি ভয়ে চিৎকার করে ওঠেন। সাপটির দৈর্ঘ্য অন্তত আট থেকে সাড়ে আট ফুট।

খবর পেয়ে কাইমুদ্দিন মন্ডল কিছুক্ষণের মধ্যে নিজের দোকানে এসে হাজির হন। তিনি জানান, এ ঘটনার পর বাজারের ব্যবসায়ীরা ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন। তারা ভ্যানচালক আলমগীরকে আটক করেন। সবার চাপে ভ্যানচালক জানান, রামনগর ইউনিয়নের কালীখোলা গ্রামের বাসিন্দা কাঠ ব্যবসায়ী

জহুরুদ্দী কারিগর (৫৩) তাকে ওই উপহারের বাক্সটি কাইমুদ্দিন মণ্ডলের দোকানে পৌঁছে দিতে বলেন। পরে ভ্যানচালকের সহায়তায় এলাকাবাসী জহুরুদ্দী কারিগরকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেন। নগরকান্দা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) জ্যেতি প্রু বলেন,

বিষয়টি তদন্ত করতে হবে। আমি কাইমুদ্দিন মণ্ডলকে আইনগত ব্যবস্থা নিতে বলেছি। ফরিদপুর কোতোয়ালি থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এম এ জলিল বলেন, এ ঘটনায় জনতার রোষ থেকে বাঁচাতে জহুরুদ্দী কারিগরকে আটক করা হয়। পরে চেয়ারম্যান কাইমুদ্দিন মণ্ডল কোনো আইনগত ব্যবস্থা নেবেন না বলে জানালে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়।


Leave a Reply

Your email address will not be published.