পুলিশ মামলা নেয়নি প্রবাসীর, হামলা থেকে বাঁচতে নদিতে ঝাঁপ দিয়ে বাবা-মেয়ের মৃত্যু

পুলিশ মামলা নেয়নি প্রবাসীর, হামলা থেকে বাঁচতে নদিতে ঝাঁপ দিয়ে  বাবা-মেয়ের মৃত্যু

জামালপুরের সরিষাবাড়িতে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে বড় ভাইয়ের হামলার ভয়ে নদে ঝাঁপ দিয়ে নিখোঁজ হওয়া প্রবাসী আজিজ ও তার ৪ বছরের মেয়ে জান্নাতের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (৩১ মার্চ) সকাল ৯টায় বাড়ির পাশে ঝিনাই নদে মরদেহ দেখে সরিষাবাড়ি থানা পুলিশকে খবর দেন এলাকাবাসী। ঘটনাস্থলে পৌঁছে বাবা-মেয়ের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

পরিবার ও পুলিশ জানায়, দীর্ঘ ২ বছর ধরে সৌদি প্রবাসী আজিজের সঙ্গে তার বড় ভাই আজাহারের বাড়ির সামনের রাস্তা নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। জমির বিরোধ মীমাংসা করতে দুই মাস আগে সৌদি থেকে বাড়িতে ফেরেন আজিজ।

এরপর দফায় দফায় শালিস বৈঠক করেও মীমাংসা না হওয়ায় আজাহার আদালতে মামলা দায়ের করেন।আজিজের পরিবার জানায়, আজিজ সরিষাবাড়ি থানায় মামলা দিতে গেলে পুলিশ মামলা নেয়নি। গত সোমবার আজিজ আদালতে হাজির হয়ে জামিনে বেরিয়ে আসেন।

জামিনে বেরিয়ে ভাটারা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বোরহান উদ্দিন বাদলের আপস মীমাংসার আশ্বাসে বাড়ি যান। বাড়িতে আসার খবরে গত মঙ্গলবার রাত ১০টায় আজাহার দলবল নিয়ে আজিজের বাড়িতে হামলা চালায়। এ সময় ৪ বছরের মেয়ে জান্নাতকে নিয়ে দৌড়ে

জীবনরক্ষা করতে বাড়ির পাশে ঝিনাই নদে ঝাঁপ দেন আজিজ। এরপর থেকে তারা নিখোঁজ ছিলেন। পরিবারের লোকজন নদে খোঁজাখুঁজি করেও তাদের সন্ধান পায়নি।
সকাল ৯টায় নদে তাদের মরদেহ ভেসে উঠলে এলাকাবাসী পুলিশে খবর দেন। পুলিশ এসে তাদের মরদেহ উদ্ধার করে।

সরিষাবাড়ি থানার উপপুলিশ পরিদর্শক সাইফুল ইসলাম বলেন, বাবা-মেয়ের মরদেহ উদ্ধার করে সরিষাবাড়ি থানায় পাঠানো হয়েছে। মরদেহের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে ময়নাতদন্তের জন্য জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হবে। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। আসামিরা বাড়িঘর ছেড়ে পালিয়েছে। তাদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে বলেও জানান তিনি।


Leave a Reply

Your email address will not be published.