৮০ বছরের বৃদ্ধের সাথে ৩০ বছরের তরুণীর বিয়ে! অবশেষে মুখ খুললেন সেই দম্পতি (ভিডিওসহ)

৮০ বছরের বৃদ্ধের সাথে ৩০ বছরের তরুণীর বিয়ে! অবশেষে মুখ খুললেন সেই দম্পতি (ভিডিওসহ)

মিডিয়া: সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ কয়েকটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। ভাইরাল সেই ভিডিওগুলোতে দেখা যায় যে, ৮০ বছরের বৃদ্ধ সাহাদাতকে বিয়ে করেছেন ৩০ বছর বয়সী তন্নী।

আর এই নিয়েই শুরু হয় সমালোচনার ঝড়! অনেকে করে বসেন নানা মন্তব্য। নেটিজনদের সমালেচনার জবাব দিতেই লাইভে আসেন আলোচিত সেই দম্পতি। এ নিয়ে মুখ খুলেন সাহাদাত ও তন্নী।

জানা যায় অনেক চাঞ্চল্যকর তথ্য! বেশকিছু দিন আগে প্রেম করে বিয়ে করেন তন্নী ও সাহাদাত। সাহাদাতের বয়স বেশী হওয়ায় অনেকে মনে করেন যে, টাকার জন্যেই তন্নী ৮০ বছর বয়সী বৃদ্ধকে বিয়ে করেন। কিন্তু তা সত্য নয়। মূলত ভালবেসেই বিয়ে করেন এ দম্পতি।

সাহাদাত এর সাথে তন্নীর পরিচয় একটি এয়ারলেস্ন অফিসে প্রিন্টিংয়ের কাজ করার সময়। আর সেই প্রথম দেখায় ভাল লাগা। এরপর সাহাদাতের দুই বন্ধুর সাথে যোগাযোগ করেই সেখানে আসা-যাওয়া করতে ওই কোম্পানিতে যায় এবং তার সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেয়!

এবং এরপরে তাদের ফোনে যোগাযোগ হয় একপর্যায়ে তার সঙ্গে শাহাদাত দেখা করতে বলে বনানীতে। আর সেখান থেকেই বিয়ে। আর বিয়ের পরই শুরু হয় সমালোচনা। লাইভের নানা কমেন্টের জবাবে তন্নী বলেন,

আমি ৮০ বছরের বৃদ্ধকে বিয়ে করেসি, তোর বাপরে তো বিয়ে করি নাই! আমি একবারও বলসি আমার জামাই ছোকরা? আমিতো ভালোবেসেই বৃদ্ধ জামাইকে বিয়ে করেসি! তাহলে তোদের এতো সমস্যা কোথায়। আরও এক টকশোতে এসে তাদের ভালবাসার কথা জানিয়ে দেন এ দম্পতি।

এসময় সাহাদাত বলেন, আমি তন্নীর র দিকে প্রথমে ভয়ে তাকাইনি, যদি থাপ্পড় দিয়ে বসে? আর তন্নী বলেন, ওই আমায় ফোন দিয়েই বললো প্লিজ তুমি আমার জীবন থেকে চলে যেও না! যখন আমি ফিল করলাম ওর জন্য আমার কান্না পায়,

তখন ভাবলাম ওকে আমার বিয়ে করা উচিত। আমার ডিভোর্স হয়ে গেছে সেটা ও জানতো, আমি লুকাইনি কিছুই, ওর ব্যাপারেও জানতাম। যখন আমি ফিল করলাম ওর জন্য আমার কান্না পায় তখন বুঝলাম প্রেমে পড়েছি!

ভিডিও দেখতে এখানে ক্লিক করুন


Leave a Reply

Your email address will not be published.