গরমে পাউডার ব্যবহারে ডেকে আনছেন বিপদ!


দেশজুড়ে: বসন্তের প্রায় শেষের সময়টায় হাতছানি দিচ্ছে গ্রীষ্ম। আর তাতেই বেড়ে চলেছে তীব্র গরম।

গরমের সঙ্গে ঘামও যেন জনজীবনে হয়ে উঠেছে নিত্যসঙ্গী। এই গরম আর ঘাম থেকে বাঁচতে অনেকেই বেছে নেন ট্যালকম পাউডার।

কিন্তু এতে আপনি সুরক্ষিত হচ্ছেন, না বিপদ আলিঙ্গন করছেন তা কি ভেবে দেখেছেন? বিভিন্ন কসমেটিকের দোকানগুলোতে নানা ব্র্যান্ডের ট্যালকম পাউডার রয়েছে।

এই ট্যালকম পাউডার তৈরি হয় ট্যাল্ক নামক একটি পদার্থ থেকে।এটি মূলত ম্যাগনেশিয়াম, সিলিকন ও অক্সিজেন দ্বারা গঠিত একটি উপাদান। এটি আর্দ্রতা শোষণ করতে

ও ত্বককে ঘর্ষণজনিত আঘাত থেকে রক্ষা করতে সহায়তা করে। ফলে এ ধরনের পাউডারে যেমন একদিকে ঘাম নিয়ন্ত্রিত হয়, তেমনি কমে ঘাম ও ত্বকের বিভিন্ন ক্ষত তৈরির আশঙ্কা।

তবে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, কিছু ট্যালকম পাউডারে অ্যাসবেসটস নামক উপাদান রয়েছে, যা শ্বাসের সঙ্গে দেহে প্রবেশ করলে হতে পারে হাঁচি, কাশি ও শ্বাসকষ্ট। এমনকি দীর্ঘমেয়াদি ক্ষতি হতে পারে ফুসফুসের কোষ ও টিস্যুর, যা ক্যানসারের ঝুঁকি বৃদ্ধি করে।

আমেরিকার একটি গবেষণায় দেখা গেছে, গরম থেকে বাঁচতে বিশেষ অঙ্গ সংলগ্ন অঞ্চলে পায়ের জয়েন্ট এরিয়ায় এই পাউডার বেশি ব্যবহার করা হলে আশঙ্কা থাকে ওভারিয়ান ক্যানসারের।

অনেক গবেষকই মনে করেন, ট্যালকম পাউডারে অ্যাসবেসটসের উপস্থিতিতে অনেক সময় ঘর্মগ্রন্থির ক্ষরণের পথ রুদ্ধ হয়, যা ঘাম আটকায় ঠিকই কিন্তু ডেকে আনে ত্বকের মারাত্মক ক্ষতি।

শিশুদের জন্য এ ধরনের পাউডার ব্যবহার করা হলে বাড়তি সতর্কতা নেওয়া প্রয়োজন বলে মনে করেন বিশেষজ্ঞরা। তাই এসব সমস্যা এড়াতে অবশ্যই কেনার সময় ট্যালকম পাউডার তৈরির উপাদানগুলো পণ্যের গায়ে লেখা দেখে কিনুন ও বিপদমুক্ত থাকুন। সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা


Leave a Reply

Your email address will not be published.