টিপ পরছোস কেন, যেভাবে শনাক্ত সেই পুলিশ সদস্য


টিপ পরায় নারীকে হেনস্তাকারী পুলিশের সদস্যকে শনাক্ত করা হয়েছে। তার নাম নাজমুল তারেক। তিনি কনস্টেবল হিসেবে ঢাকা মহানগর পুলিশের প্রটেকশন বিভাগে কর্মরত।

শনাক্তের পরে তাকে হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ কর্মকর্তারা। পুলিশের তেজগাঁও বিভাগের উপকমিশনার বিপ্লব কুমার সরকার এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি জানান, রাজধানীর ফার্মগেটে তেজগাঁও কলেজের শিক্ষিকা ড. লতা সমাদ্দারকে হেনস্তা করা ওই পুলিশ সদস্যকে প্রযুক্তির বিশ্লেষণের মাধ্যমে শনাক্ত করা হয়েছে।

তিনি বলেন, আমরা সিসিটিভি ফুটেজ, ডিজিটাল ও এনালগ সব পর্যায়ে তদন্তপূর্বক কনস্টেবল নাজমুলের ব্যাপারে নিশ্চিত হয়েছি। এর আগে শনিবার (২ এপ্রিল)

রাজধানীর গ্রিন রোডের বাসা থেকে কলেজে যাওয়ার পথে উত্ত্যক্তের শিকার হন তেজগাঁও কলেজের থিয়েটার অ্যান্ড মিডিয়া স্টাডিজ বিভাগের প্রভাষক ড. লতা সমাদ্দার।

তিনি অভিযোগ করেন, কলেজে হেঁটে যাওয়ার সময় পাশ থেকে মধ্যবয়সী, লম্বা দাড়িওয়ালা একজন- ‘টিপ পরছোস কেন’ বলেই বাজে গালি দেন তাকে। ওই মধ্যবয়সী ব্যক্তির গায়ে পুলিশের পোশাক ছিল।

তিনি আরো অভিযোগ করেন, ঘটনার প্রতিবাদ জানালে একপর্যায়ে তার পায়ের ওপর দিয়েই বাইক চালিয়ে চলে যান সেই ব্যক্তি। এতে তিনি আহত হন। পরে এ ঘটনায় শেরেবাংলা নগর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন তিনি।


Leave a Reply

Your email address will not be published.