অনলাইনে ছড়াল আ’পত্তিকর ছবি, পুলিশের সহায়তা না পেয়ে কলেজছাত্রীর আ’ত্মহ’ত্যা

অনলাইনে ছড়াল আ’পত্তিকর ছবি, পুলিশের সহায়তা না পেয়ে কলেজছাত্রীর আ’ত্মহ’ত্যা

অনলাইনে আ’পত্তিকর ছবি ছড়িয়ে পড়ায় আ’ত্মহ’ত্যা করেছেন এক তরুণী।

২০ বছর বয়সী ওই তরুণী বিষপানে আ’ত্মহ’ত্যা করেন বলে জানায় পুলিশ। তারা জানিয়েছে, এ ঘটনায় মূল অ’ভিযুক্তসহ চারজনকে গ্রে’প্তার করা হয়েছে।

এনডিটিভি জানিয়েছে, ভা’রতের উত্তরপ্রদেশের সাহারানপুরে এ ঘটনা ঘটেছে। জানা গেছে, অনলাইনে আ’পত্তিকর ছবি ছড়িয়ে পড়ার বিষয়ে পু’লিশের কাছে

অভিযোগ দায়ের করেছিলেন ওই ত’রুণী। কিন্তু পুলিশের নি’ষ্ক্রিয়তার কারণে চরম পদক্ষেপ নিতে বাধ্য হন তিনি। পুলিশ জানিয়েছে, দায়িত্বে অবহেলা করার অ’ভিযোগে

একজন ক’নস্টেবলকে ব’রখাস্ত করা হয়েছে। পুলিশ সুপার (রুরাল) অতুল শর্মা পিটিআইকে বলেছেন, বেহাত থানা সীমানার অ’ন্তর্গত একটি গ্রামের বাসিন্দা এক নারী

বি’ষপানে আ’ত্মহ’ত্যা করেছেন বলে তার পরিবারের সদস্যরা দাবি করেছেন। ওই ত’রুণীর পরিবারের সদস্যদের দায়ের করা পু’লিশ অভিযোগে বলা হয়েছে, শুক্রবার তার মৃ’ত্যু হয় এবং একই দিনে তাকে দা’হ করা হয়। শনিবার ওই কলেজছাত্রীর পরিবার জানায়, তার বইয়ের মধ্যে একটি সু’ইসাইড নোট খুঁ’জে পান তারা। অতুল শর্মা বলেন,সু’ইসাইড নোটে ওই কলেজছাত্রী অভিযোগ করেন, ওয়াসিম এবং সেলিম নামে দুই ব্যক্তিকে তার আ’পত্তিকর ছবি তুলে অনলাইনে পোস্ট করে। তিনি তার মৃ’ত্যুর জন্য দু’জনকেই দায়ী করেছেন। এর ভিত্তিতে আমরা অ’ভিযুক্তের বি’রুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেছি এবং ত’দন্ত শুরু করেছি। তিনি বলেন, মোহিত ও ধী’রাজ নামে আরও দু’জনসহ ওয়াসিম এবং সেলিমকে রোববার গ্রে’প্তার করা হয়। তিনি বলেন, এই মা’মলার মূল অ’ভিযুক্ত হচ্ছেন ধী’রাজ।


Leave a Reply

Your email address will not be published.