তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রীকে ধ’র্ষণ মামলায় মাদরাসার পরিচালক গ্রেপ্তার, জানা গেল চাঞ্চল্য কর তথ্য

তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রীকে ধ’র্ষণ মামলায় মাদরাসার পরিচালক গ্রেপ্তার, জানা গেল চাঞ্চল্য কর তথ্য

চুয়াডাঙ্গার দর্শনায় তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রীকে ধ’র্ষণের অভিযোগে গোলাম কিবরিয়া (৫৫) নামে এক মাদরাসার পরিচালককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (৭ এপ্রিল) দুপুর ১টার দিকে বাদী হয়ে দর্শনা থানায় মামলা দায়ের করেন নির্যাতনের শিকার মাদরাসাছাত্রীর বাবা। পরে দুপুর ২টার দিকে

দর্শনার মাসুমা জান্নাত মহিলা মাদরাসায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তার গোলাম কিবরিয়া কুষ্টিয়া জেলার কুচিয়ামোড়া গ্রামের মৃ’ত নাজির

হোসেনের ছেলে। তিনি দর্শনার মাসুমা জান্নাত মহিলা মাদরাসার পরিচালক। দর্শনার দক্ষিণ চাঁদপুর গ্রামের নান্নু মুহুরির বাড়িতে সপরিবারে ভাড়ায় থাকেন।

মামলার এজহার সূত্রে জানা গেছে, গোলাম কিবরিয়ার স্ত্রী, মেয়ে ও জামাই একই মাদরাসার শিক্ষক। গত ২৪ মার্চ সকালে তার স্ত্রী, মেয়ে ও জামাই মাদরাসায় ছিলেন।

এই সুযোগে বেলা ১১টার দিকে এক বোতল পানি নিয়ে মাদরাসার তৃতীয় শ্রেণির এক ছাত্রীকে বাসায় ডাকেন তিনি। তার বাড়িতে পানি নিয়ে গেলে ঘরের দরজা বন্ধ করে

ওই ছাত্রীকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করেন। পরে ঘটনাটি প্রকাশ না করতে ওই ছাত্রীকে হুমকিও দেন গোলাম কিবরিয়া। গত ৫ এপ্রিল অসুস্থবোধ করলে বিষয়টি জিজ্ঞেস করে তার

এক সহপাঠীকে। তখন ঘটনাটি তার সহপাঠীকে জানায় ওই মাদরাসার ছাত্রী। বাড়ি এসে ঘটনাটি নিজের পরিবারকে জানায় তার সহপাঠী। বৃহস্পতিবার (৭ এপ্রিল) সকালে নি’র্যাতনের শিকার ওই ছাত্রীর বাবাকে ঘটনাটি জানায় সহপাঠী ছাত্রীর বাবা। ঘটনাটি জানার পর দুপুরে ওই ছাত্রীর বাবা মাদরাসায় গেলে তাদের দেখে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন মাদরাসার পরিচালক গোলাম কিবরিয়া। পরে স্থানীয়দের সহযোগীতায় তাকে আটক করে পুলিশে দেওয়া হয়।

দর্শনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এএইচএম লুৎফুল কবীর আরটিভি নিউজকে জানিয়েছেন, গ্রেপ্তার মাদরাসার পরিচালক গোলাম কিবরিয়াকে বিকেলে তাকে আদালতে তোলা হয়। নি’র্যাতনের শিকার মাদরাসার ছাত্রীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য সদর হাসপাতালে পাঠানো হবে।


Leave a Reply

Your email address will not be published.