শাঁখা-পলা পড়ে রইল, চলে গেলেন অর্পিতা

শাঁখা-পলা পড়ে রইল, চলে গেলেন অর্পিতা

বাংলাদেশ: শরীয়তপুরের নড়িয়ায় গলায় ওড়না পেঁচিয়ে অর্পিতা মন্ডল (১৮) নামের এক গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছেন। বুধবার (৬ এপ্রিল) সন্ধা ৬টার দিকে নড়িয়া পৌরসভার

৬ নম্বর ওয়ার্ডের বিসমিল্লাহ নগর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত অর্পিতা বাড়ৈপাড়া গ্রামের লালু দাসের মেয়ে এবং বিসমিল্লাহ নগর গ্রামের বাসিন্দা আকাশ মন্ডলের স্ত্রী।

ছয় মাস আগে প্রেম করে তাঁদের বিয়ে হয়। বিয়ের ৩ মাস পর আকাশ রোমানিয়া চলে যান। অর্পিতার শাশুড়ি লিপী মন্ডল জানান, অর্পিতা গত বছর নড়িয়া পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে

এসএসসি পরীক্ষা দিয়েছিল। এক বিষয়ে খারাপ করায় আজ (গতকাল) সকালে ওকে নিয়ে পরীক্ষার ফরম ফিলআপ করার জন্য স্কুলে যাই। স্কুল থেকে বাড়ি ফিরে আসি। এরপর থেকেই ওর মন খারাপ।

বিকালে ঘরের দরজা বন্ধ দেখে ওরে ডাক দিই। সাড়া না দেওয়ায় জানালা দিয়ে ওকে গলায় ফাঁস দেওয়া অবস্থায় ঝুলতে দেখি। এরপরে জানালা দিয়ে দরজা খুলেছি। পুলিশকে খবর দিলে ওরা এসে লাশ নিয়ে যায়।

তিনি জানান, বিয়ের পরে সুন্দরভাবেই সংসার করছিল। নিজের মেয়ের মতোই দেখেছি সব সময়। কী কারণে ও এমন করল বুঝছি না। নড়িয়া থানার ওসি অবনী শংকর কর ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন,

‘মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য শরীয়তপুর সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। প্রাথমিকভাবে এটি আত্মহত্যা বলে মনে হচ্ছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন আসলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। ‘


Leave a Reply

Your email address will not be published.