সাবেক যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে ধ’র্ষণ মামলা করে বাদীনী জেলে


সিরাজগঞ্জ পৌর শহরের জানপুর মহল্লার এক যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে মিথ্যা ধ’র্ষণচেষ্টা মামলা দায়ের করায় আদালতের আদেশে বাদীর বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের পর তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

বুধবার (৬ এপ্রিল) ভোরে সদর থানা পুলিশ রায়গঞ্জ উপজেলার নিমগাছী এলাকায় বাদীর আত্মীয়ের বাড়ী থেকে তাকে আটক করে। আটক নারীকে বিকেলে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়।

মামলা সূত্রে জানা যায়, গত বছরের ২৩ সেপ্টেম্বর তিনি বাদী হয়ে সদর থানায় পৌর যুবলীগের সাবেক নেতার বিরুদ্ধে একটি ধ’র্ষণচেষ্টা মামলা দায়ের করেন। মামলায় বাদী উল্লেখ করেন, অভিযুক্ত ব্যক্তি ২০ সেপ্টেম্বর বিকেল ৫টায় তার শয়নকক্ষে তাকে ধ’র্ষণের চেষ্টা করেন।

সদর থানার উপপরিদর্শক আলিম হোসাইন মামলাটির তদন্ত শেষে গত ১৬ নভেম্বর আদালতে চূড়ান্ত প্রতিবেদন দাখিল করেন। আদালতে মামলাটি মিথ্যা প্রমাণিত হলে ওই যুবলীগ নেতাকে হয়রানি ও স’ম্মানহানি করার অভিযোগে বাদীর

বিরুদ্ধে ২০০০ সালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন (সং/০৩)-এর ১৭ ধারায় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা আলিম হোসাইন আদালতে আবেদন করলে আদালত বাদীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেন। আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ী এসআই আলিম

হোসাইন বাদীর বিরুদ্ধে এ বছরের ২৫ মার্চ মামলা দায়ের করেন। মামলার বর্তমান তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই ফারুক হোসেন জানান, মিথ্যা মামলা প্রমাণিত এবং তার বিরুদ্ধে মামলা হবার পর থেকেই বাদী পলাতক ছিলেন। বুধবার ভোরে রায়গঞ্জ থানার নিমগাছী

এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করা হয়। বিকেলে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়। ভুক্তভোগী যুবলীগ নেতা জানান, শুধু মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি ও মানসম্মানের ক্ষতিই নয়, বাদীর স্বামী সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে তাকে হ’ত্যার উদ্দেশ্যে মা’রধোর করেন। মামলার সুষ্ঠু তদন্তের জন্য সন্তুষ্টি প্রকাশ করেন তিনি।


Leave a Reply

Your email address will not be published.