মসজিদের মাইকে ঘোষণা দিয়ে সংঘর্ষ : ছাত্রলীগ নেতাসহ ২৯ জনের বিরুদ্ধে মামলা

মসজিদের মাইকে ঘোষণা দিয়ে সংঘর্ষ : ছাত্রলীগ নেতাসহ ২৯ জনের বিরুদ্ধে মামলা

মামলা: কক্সবাজারের টেকনাফে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে মসজিদের মাইকে ঘোষণা দিয়ে দুই গ্রামবাসীর সংঘর্ষের ঘটনায় উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নুরুল মোস্তফাসহ ২৯ জনের বি’রুদ্ধে মা’মলা করা হয়েছে।

মা’মলায় ১৫ জনকে অ’জ্ঞাতনামা আ’সামি করা হয়। উপজেলার হ্নীলা ইউপি সদস্য বেলাল উদ্দিন বাদী হয়ে এ মামলা দায়ের করেন। মা’মলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, গত ৭ এপ্রিল আ’সামিরা বাদীর ভাতিজা সাইফুল

ইসলামকে লাঠি, দা ছুরি নিয়ে হামলা করে আহত করেন। এ সময় তাকে বাঁচাতে এলে বাদী বেলাল উদ্দিনকেও আঘাত করা হয়। এতে তিনি গুরুতর আহত হন। অন্যদিকে একই সময় আ’সামিরা ইটপাটকেল ছুড়ে স্থানীয় মসজিদের জানালাসহ অন্যান্য অংশ ভাঙচুর করেন।

পরে আরও কয়েক দফায় হা’মলা চালান আসামিরা। একপর্যায়ে আসামিরা আবারও হামলা চালালে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘ’র্ষে পুলিশসহ ২০ জন আহত হন। হ্নীলা ইউনিয়নের ২ নং ওয়ার্ডের মেম্বার বেলাল উদ্দিন জানান, সোমবার ভোররাতে স্থানীয় লোকজন উপজেলা

ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নুরুল মোস্তফার বিরুদ্ধে ঝাড়ু মি’ছিল করেছেন। ওই দিনের ঘটনায় তিনিও আহত হয়েছিলেন। ঘটনার ইন্ধনদাতা ছিলেন ছাত্রলীগের ওই নেতা। তাই তাকেসহ ২৯ জনের বি’রুদ্ধে মা’মলা দায়ের করা হয়েছে।

উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নুরুল মোস্তফা জানান, মাইকে ঘোষণা দিয়ে দুই গ্রুপের মধ্যে বি’শৃঙ্খলা সৃষ্টি দেখে স্থানীয় প্রশাসনকে জানানো হয়েছিল। পরে টেকনাফ মডেল থানার ওসির নেতৃত্বে পুলিশ ও র‍্যাবের পৃথক টিম ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

তিনি আরও জানান, ‘আমি সরকারদলীয় ছাত্রসংগঠনের একজন নেতা। এ ঘটনায় আমাকে আসামি করে মামলা করা এটি রাজনৈতিক উদ্দেশ্য হাসিলের একটি ষড়যন্ত্র বলে মনে করছি। এ ঘটনায় আমি কোনোভাবেই জড়িত নয়। বিষয়টি প্রশাসন সুষ্ঠুভাবে তদন্ত করবে বলে আশা করছি।’

টেকনাফ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. হাফিজুর রহমান জানান, বাদীর করা এজাহারটি প্রাথমিক তদন্ত শেষে মামলা হিসেবে নেওয়া হয়েছে। এজাহারভুক্ত আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। উল্লেখ্য,গত শুক্রবার জুমার নামাজের পর টেকনাফের হ্নীলা মৌলভীবাজারে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে মসজিদের মাইকে ঘোষণা দিয়ে সংঘর্ষে জড়ায় দুই গ্রামবাসী। এতে পুলিশের ২ সদস্যসহ উভয় পক্ষের অন্তত ২০ জন আহত হন। পরে ঘটনাস্থলে পুলিশ ও র‍্যাব এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।


Leave a Reply

Your email address will not be published.