জোবায়দার রায় নিয়ে ফখরুলের মন্তব্য আদালত অবমাননার শামিল

জোবায়দার রায় নিয়ে ফখরুলের মন্তব্য আদালত অবমাননার শামিল

সংবাদ: বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার পুত্রবধূ ডা. জোবায়দা রহমানকে নিয়ে সুপ্রিম কোর্ট আপিল বিভাগের রায় নিয়ে দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম

আলমগীরের মন্তব্য ‘আদালত অবমাননার শামিল’ বলে মনে করেন দুর্নীতি দমন কমিশনের আইনজীবী মো. খুরশীদ আলম খান। শনিবার (১৬ এপ্রিল) এক প্রতিক্রিয়ায় দুদকের জ্যেষ্ঠ এই

আইনজীবী এমন মন্তব্য করেন। এর আগে গত ১৩ এপ্রিল দুর্নীতির মামলা বাতিলের আবেদন খারিজ করে হাইকোর্টের দেওয়া রায়ের বিরুদ্ধে বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের স্ত্রী

ডা. জোবায়দা রহমানের লিভ টু আপিল খারিজ করে দিয়েছেন প্রধান বিচারপতির হাসান ফয়েজ সিদ্দিকীর নেতৃত্বে ৪ বিচারপতির আপিল বেঞ্চ। ফলে বিচারিক আদালতে তার বিরুদ্ধে মামলা চলতে

বাধা নেই বলে জানান আইনজীবীরা। ওই মামলাটির আদেশ নিয়ে গত ১৫ এপ্রিল রাজধানীর মহানগর নাট্যমঞ্চ প্রাঙ্গণে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপি আয়োজিত ইফতার মাহফিলে মির্জা ফখরুল

ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘সম্প্রতি আপনারা দেখেছেন, আমাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সহধর্মিনী ডা. জোবায়দা রহমান যিনি রাজনীতির সঙ্গে কখনোই সম্পৃক্ত ছিলেন না, তার বিরুদ্ধেও দুদক একটা মিথ্যা মামলা দিয়ে তার কার্যক্রম শুরু করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। আমরা মনে করি, এটা অত্যন্ত বেআইনি কাজ। আমরা মনে করি, এটা শুধু বিচার বিভাগের স্বাধীনতা নয়; বিচার বিভাগকেও নিয়ন্ত্রণ করা হচ্ছে।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের ওই মন্তব্যে বিষয়ে দুদকের আইনজীবী বলেন, ‘কারণ না জেনে, না বুঝে সুপ্রিম কোর্টের রায় সম্পর্কে… যে কোনও আদালতের রায় সম্পর্কে মন্তব্য করা অত্যন্ত বিপদজনক। আর সে কাজটি করেছেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। যা আদালত অবমাননার শামিল। মো. খুরশীদ আলম খান আরও বলেন, ‘গত ৭ এপ্রিল আপিল বিভাগের শুনানিতে ওনাদের পক্ষে দীর্ঘ

শুনানি করেছেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী (সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেল এ জে মোহাম্মদ আলী)। দুদকের পক্ষে আমি বিস্তারিত যুক্তিতর্ক উপস্থাপন করি। তারপর আপিল বিভাগ আবেদনটি খারিজ করে দেন। যা মামলার গুনাগুনের ভিত্তিতে নিষ্পত্তি হয়েছে। এ ধরনের রায় নিয়ে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর যে বক্তব্য দিয়েছেন এটা চরম আদালত অবমাননার শামিল। মির্জা ফখরুলের এমন বক্তব্যের তীব্র নিন্দাও জানান দুদকের এই আইনজীবী।


Leave a Reply

Your email address will not be published.