যে কারণে কঠোর হুঁ’শিয়ারি দিলেন কাদের মির্জা!

যে কারণে কঠোর হুঁ’শিয়ারি দিলেন কাদের মির্জা!

রাজনীতি: নোয়াখালী-৫ (কোম্পানীগঞ্জ-কবিরহাট) আসন নিয়ে ঘোলা পানিতে মাছ শিকার না করতে হুঁ’শিয়ারি দিয়েছেন বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জা।

রোববার (১৭ এপ্রিল) রাতে নিজের ফেসবুক আইডিতে এক স্ট্যাটাসের মাধ্যমে তিনি এই হুঁশিয়ারি দেন। স্ট্যাটাসে কাদের মির্জা বলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক,

নোয়াখালীর কৃতি সন্তান, জননেতা জনাব ওবায়দুল কাদের এমপি সাহেব নোয়াখালী-৫ আসনের একমাত্র অভিভাবক। জননেতা ওবায়দুল কাদের এমপি থাকাকালীন নোয়াখালী-৫ সংসদীয় আসনে দ্বিতীয় কোনো ব্যক্তি

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশা করার মতো দুঃসাহস করবেন না। এখনো পর্যন্ত আমার পক্ষ থেকে নির্বাচন করা বা মনোনয়ন প্রত্যাশার কোনো কথা বলা হয়নি। ঘোলা পানিতে কেউ মাছ শিকার করার চেষ্টা করবেন না।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের একমাত্র অভিভাবক জননেত্রী শেখ হাসিনা ও নোয়াখালীর রাজনীতির একমাত্র অভিভাবক জননেতা ওবায়দুল কাদের এমপির সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত হবে। স্ট্যাটাসের সত্যতা নিশ্চিত করে কাদের মির্জা বলেন, ওবায়দুল কাদের হলেন নোয়াখালীর অভিভাবক।

তিনি একজন দক্ষ বীর মুক্তিযোদ্ধা। তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। তার বর্তমানে কেউ যদি নোয়াখালী-৫ আসন নিয়ে মনোনয়ন চায় তাহলে ভালো হবে না। কেননা ওবায়দুল কাদের আমাদের একমাত্র অভিভাবক।

এর আগে শুক্রবার (১৫ এপ্রিল) সন্ধ্যায় কবিরহাটে নিজ বাড়িতে ইফতার মাহফিলে ওবায়দুল কাদেরের আসন থেকে দলীয় মনোনয়ন চাইবেন বলে জানিয়েছেন নোয়াখালী-৪ (সদর-সুবর্ণচর) আসনের সংসদ সদস্য একরামুল করিম চৌধুরী।

প্রসঙ্গত, নোয়াখালী-৫ (কোম্পানীগঞ্জ-কবিরহাট) আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি এই আসন থেকে দলীয় মনোনয়ন নিয়ে চতুর্থবারের মতো সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন।


Leave a Reply

Your email address will not be published.