হিজাব পরায় পরীক্ষা দিতে দেওয়া হলো না দুই শিক্ষার্থীকে

হিজাব পরায় পরীক্ষা দিতে দেওয়া হলো না দুই শিক্ষার্থীকে

সংবাদ: গত কয়েকমাস ধরেই হিজাব বিতর্কে উত্তাল ভারতের কর্ণাটক। এবার নতুন করে তৈরি হলো বিতর্ক।

হিজাব পরে আসায় পরীক্ষার হলে ঢুকতে দেওয়া হলো না দুই শিক্ষার্থীকে। কর্নাটকের উদুপিতে হিজাব পরে পরীক্ষা দিতে না

দেওয়ার কারণে কলেজ থেকেই বের হয়ে যান ওই দুই শিক্ষার্থী। জানা গেছে, শুক্রবার (২২ এপ্রিল) কর্ণাটক বোর্ডের দ্বাদশ শ্রেণির পরীক্ষা ছিল।

পরীক্ষা শুরুর আগেই রাজ্যটির শিক্ষামন্ত্রী বি সি নাগেশ জানিয়ে দিয়েছিলেন, কোনো পরীক্ষার্থী হিজাব পরে এলে তাকে হলে ঢুকতে দেওয়া হবে না।

এ নির্দেশনা মেনেই পরীক্ষাকেন্দ্রে উপস্থিত হন অনেক শিক্ষার্থী। এদিকে উদুপির পিইউ কলেজে হিজাব পরে পরীক্ষা দিতে গিয়েছিলেন আলিয়া আসাদি এবং রেশম

নামের দুই শিক্ষার্থী। কিন্তু হিজাব পরার কারণে তাদের পরীক্ষার হলে ঢুকতে দেওয়া হয়নি। ৪৫ মিনিট ধরে কলেজের অধ্যক্ষকে অনুনয়-বিনয় করেও পরীক্ষার হলে প্রবেশের অনুমতি না পেয়ে বাড়ি ফিরে যান তারা।

কর্ণাটকের প্রাক-বিশ্ববিদ্যালয় বোর্ডের অধীনে দ্বাদশ শ্রেণির বোর্ড পরীক্ষা আজ থেকে শুরু হয়েছে এবং চলবে ১৮ মে পর্যন্ত। একযোগে দেশটির ১ হাজার ৭৬টি কেন্দ্রে এ পরীক্ষা শুরু হয়েছে। পরীক্ষা চলাকালে শিক্ষার্থীদের পোশাক নিয়ে কোথাও যেন কোনো অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা না ঘটে সেজন্য কঠোর নিরাপত্তার ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

আদালতের নির্দেশ রক্ষার জন্য স্কুলের শিক্ষকরা শিক্ষার্থীদের হিজাব খুলে পরীক্ষা হলে প্রবেশ করতে বাধ্য করছেন। অনেক মুসলিম শিক্ষার্থীরা পরে পরীক্ষা দেওয়ার অনুমতি চেয়ে শিক্ষামন্ত্রীর কাছে আবেদন করলেও সরকার তাতে সাড়া দেয়নি।


Leave a Reply

Your email address will not be published.