আল্লাহর দোহাই লাগে, আমার কাছে আসবেন না: ইমরান

আল্লাহর দোহাই লাগে, আমার কাছে আসবেন না: ইমরান

আন্তর্জাতিক: গত শনিবার নিজ বাসভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে পাকিস্তানের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রের সাংকেতিক চিঠিটিকে ভু’য়া বলেছিলেন শাহবাজ শরিফ। এমনকি এটাও বলেছিলেন,

চিঠিটি যদি সত্যি হয়, তাহলে তিনি এসে আমার সঙ্গে যোগ দেবেন।’ এরপর তিনি শাহবাজের উদ্দেশে বলেন, ‘আল্লাহর দোহাই লাগে, আমার কাছে আসবেন না। এ রকম একজন চোরকে আমার সঙ্গে নিতে পারি না।

চিঠিটিকে ভু’য়া বলার জন্য আপনার অবশ্যই ক্ষমা চাওয়া উচিত।’ ভারতীয় গণমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয়, প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান তার বাসভবনে সংবাদ সম্মেলন কালে বলেন,

প্রধানমন্ত্রী থাকার সময় আমি যে ধরনের হু’মকি পেয়েছি, সে ধরনের হুমকি নিউজিল্যান্ডের মতো একটি ছোট দেশের প্রধানমন্ত্রীও পান না। আমরা ২২ কোটি মানুষের দেশ। আমাদের সাবেক প্রধানমন্ত্রী জুলফিকার আলী ভুট্টো এবং সামরিক শাসক

পারভেজ মোশাররফও হুমকি পেয়েছিলেন। কিন্তু আমি যে ধরনের হুমকি পেয়েছি, তা দেশের জন্য লজ্জাজনক। সংবাদ সম্মেলনে ইমরান খান বলেছেন, তাঁর ক্ষমতাচ্যুতির পিছনে মার্কিন ষ’ড়যন্ত্রের হাত রয়েছে যা প্রমাণিত। এনএসসির (জাতীয় নিরাপত্তা কমিটি) বিবৃতিই প্রমাণ করে যে ষ’ড়যন্ত্র ছিল।

কিন্তু গত বৃহস্পতিবার ইমরানের উত্থাপিত মার্কিন ষড়যন্ত্রতত্ত্ব খারিজ করে দিয়েছে পাকিস্তানের জাতীয় নিরাপত্তা কমিটি (এনএসসি) ইমরান খান তাঁর শনিবারের সংবাদ সম্মেলনে আরও বলেন, ‘ডোনাল্ড লু যে ভাষা ব্যবহার করেছিলেন, তা ছিল খুবই অংহকারী। জো বাইডেনের এই কর্মকর্তা আমাদের রাষ্ট্রদূতকে বলেছিলেন যে ইমরান খানকে অনাস্থা প্রস্তাবের মাধ্যমে অপসারণ করতে হবে। আপনারা দেখেছেন,

ঘটনা শেষ পর্যন্ত তা-ই ঘটেছে। ইমরান খান বলেন, পাকিস্তানের মানুষ এখন বুঝতে শুরু করেছে যে তাদের সঙ্গে কী ধরনের রসিকতা করা হয়েছে। পাকিস্তানের মন্ত্রিসভায় এখন ক্রিমিনালদের সংখ্যা অভূতপূর্ব। আপনারা জানেন, পিতা-পুত্র উভয়েই এখন জামিনে আছেন। অন্য কাউকে আর খুঁজে পাননি আপনারা? এমন মানুষদের হাতে দেশ তুলে দেওয়ার চেয়ে বড় ষড়যন্ত্র আর কী হতে পারে?


Leave a Reply

Your email address will not be published.