কাজের প্রলোভনে অভিনেত্রীকে ধ’র্ষণ, পলাতক অভিনেতা!

কাজের প্রলোভনে অভিনেত্রীকে ধ’র্ষণ, পলাতক অভিনেতা!

জনপ্রিয় মালায়লাম অভিনেতা-প্রযোজক বিজয় বাবুর নামে ধ…র্ষ’ণের অভিযোগ তোলা হয়েছে।

তার নামে অভিযোগ- সিনেমায় কাজ দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে দিনের পর দিন এক অভিনেত্রীকে ধ…র্ষ’ণ করেছেন তিনি।

কেরালার এর্নাকুলাম থানায় বিজয়ের নামে অভিযোগ দায়ের করেন ওই অভিনেত্রী। ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৭৬, ৫০৬ এবং ৩২৩ ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে বিজয়ের নামে।

মামলার পর থেকেই পলাতক রয়েছেন এই অভিনেতা। ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের খবর, ইতোমধ্যেই বিজয়ের নামে লুক আউট নোটিশ জারি করেছে পুুলিশ। সূত্রের খবর, রাজ্যের বাইরেও অভিনেতার খোঁজ চালাচ্ছে কেরালার পুলিশ।

পুলিশের খাতায় নিঁখোজ থাকলেও মঙ্গলবার (২৬ এপ্রিল) রাতে ফেসবুক লাইভে আসেন বিজয় বাবু। শুধু তাই নয় আইন ভেঙে ধর্ষণের অভিযোগ আনা ওই অভিনেত্রীর নামও ফাঁস করেন তিনি।

ফেসবুক লাইভে এসে বিজয় বলেন, ‘আমি এই দেশের আইনকে সম্মান জানাই, কিন্তু এখানে আমি ষড়যন্ত্রের শিকার। আমার নাম বদমান হচ্ছে তাই আমার মনে হয় অপর পক্ষের নামও সবার জানা উচিত। ’

এই অভিনেতা আরও জানান, ওই অভিনেত্রী অডিশন দিয়ে তার এক সিনেমায় কাজের সুযোগ পেয়েছিলেন। এরপর থেকে কখনই ওই অভিনেত্রীর সঙ্গে কোনওরকম কথাবার্তা হয়নি তার। মিটু আন্দোলনের সুযোগ নিয়ে তাকে ফাঁসানোর চেষ্টা করা হচ্ছে বলে দাবি করে বিজয় বলেন, ২০২২ সালের শেষ দিক থেকে ওই অভিনেত্রী তাকে মুঠোফোনে মেসেজ করা শুরু করেন। চলতি বছরের মার্চে ওই অভিনেত্রীর সঙ্গে দেখা করেন বিজয়। বিজয় জানান, প্রয়োজনে তিনি ৪০০টি মেসেজের স্ক্রিনশট প্রকাশ করতে রাজি আছেন। অভিনেত্রীর নামে পাল্টা মানহানির মামলা দায়ের করার কথাও জানান তিনি। যদিও এপ্রিল মাসে ঠিক কী ঘটেছে তা নিয়ে মুখ খোলেননি এই প্রযোজক-অভিনেতা। পুলিশের সূত্র দিয়ে ভারতীয়সংবাদমাধ্যম জানায়, চলতি মাসেই বিজয়ের কুকীর্তির শিকার হন ওই অভিনেত্রী। ওই অভিনেত্রীর মেডিক্যাল টেস্টও করা হয়েছে। এমন অভিযোগ বিজয়ের নামে এবারই প্রথম নয়। কয়েকবছর আগে অভিনেত্রী সান্দ্রা থমাস বিজয়ের নামে হেনস্থার অভিযোগ তুলেছিলেন। ওই সময়ও বিজয় ফেসবুক লাইভে এসে নিজেকে নির্দোষ দাবি করেছিলেন। যদিও পরে সেই মামলা তুলে নিয়েছিলেন অভিনেত্রী নিজেই।


Leave a Reply

Your email address will not be published.