ব্যবসায়ীরা এ বিষয়ে সতর্ক থাকুন,‌ ভুলেও কাজটি করবেন না

ব্যবসায়ীরা এ বিষয়ে সতর্ক থাকুন,‌ ভুলেও কাজটি করবেন না

নিউজ ডেষ্ক- সেই পৃথিবী সৃষ্টির পর থেকেই বিভিন্ন ভাবে প্রতারণা এই শব্দটি আমাদের সঙ্গে রয়ে গেছে। পৃথিবী ক্রমেই আধুনিক হচ্ছে সাথে সাথে আধুনিক হচ্ছে প্রতারণার ধরন।

সৃষ্টি হচ্ছে বিভিন্ন প্রতারক চক্র। তাদের প্রতারণার ধরণ দেখলে আপনার চোখ কপালে উঠে যেতে বাধ্য। আপনি যা কখনো কল্পনা করতে পারবেন না, তাই করে দেখাচ্ছে এসব প্রতারক চক্রের সদস্যরা।

তবে বর্তমান সময়ে বেশি প্রতারণার শিকার হচ্ছে কিছু লোভী ব্যবসায়ী বা উচ্চ মুনাফার আশা করা কিছু ব্যবসায়ী। সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভিন্ন পোস্ট থেকে বুঝা যায়,

একটি নির্দিষ্ট প্রতারক চক্রের সদস্যের হাতে প্রতারণার শিকার হচ্ছে ব্যবসায়ীরা। এ নিয়ে প্রতারণার শিকার এক ব্যবসায়ীর ফেসবুক স্ট্যাটাস আপনাদের জন্য হুবহু তুলে ধরা হলো, যা পড়লে আপনারা সম্পূর্ণ বিষয় পরিষ্কারভাবে বুঝতে পারবেন।

ফেসবুকে পোস্ট করা হাবিবুর রহমান নামের ব্যবসায়ীর সেই স্ট্যাটাসটি: প্রত্যেক ব্যবসায়ীকে একটি বিষয়ে অবগত করার জন্য আমি ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দিচ্ছি। আমার সাথে ঘটে যাওয়া এই ঘটনাটি। দোকানে এসে একজন কাস্টোমার বলবে আমার পার্লারের জন্য বিট লোশন প্রতিদিন ৫ টা লাগে।

আমার জন্য ৯৬ পিস এনে রেখে দিবেন। আমি এসে পরে নিয়ে যাবো। আপনারা ভুলেও এ কাজটি করবেন না। কারণ ওরা একটা প্রতারক চক্র যে প্রোডাক্ট সাপ্লাই দেয় এবং যে প্রোডাক্ট চায় এবং ডেলিভারি দেয় তারা প্রতারক চক্র। কোম্পানির প্রোডাক্ট ডেলিভারি দেওয়ার পরে কাস্টমারকে যখন কল দেওয়া হয়েছে তখন সে বলে আমি ব্যাংকে আছি। আমার আসতে একটু সময় লাগবে। আপনি প্রোডাক্ট রাখেন আমি এসে নিয়ে যাব। প্রোডাক্ট ডেলিভারি দেওয়ার পরে আমি আমার কাছ থেকে ১০৬০ টাকা দেই। পরে ১৭০০ টাকা আমি বিকাশ করি। বিকাশের টাকাটা পাওয়ার পরে তাদের ফোন দুজনের সুইচ অফ। তাদের নাম্বারে ডায়াল করলে কল রিসিভ করিও না। এখন আমার নাম্বারটাও ব্লক করে দিয়েছে। পরে জানতে পারি আমি প্রতারণার শিকার! দয়া করে সবাই এ বিষয়ে সতর্ক থাকুন৷


Leave a Reply

Your email address will not be published.