আত্মসমর্পণ না করে দেশ ছাড়লেন সংসদ সদস্য হাজি সেলিম


এবার আত্মসমর্পণ না করেই দেশ ছাড়লেন পুরান ঢাকার সংসদ সদস্য হাজি সেলিম। জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের দায়ে ১০ বছরের সাজাপ্রাপ্ত আওয়ামী লীগ দলীয়

এই এমপির ঈদের পরেই বিচারিক আদালতে আত্মসমর্পণের কথা ছিল। কিন্তু তার আগেই শনিবার সন্ধ্যায় হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর দিয়ে থাইল্যান্ডের ব্যাংকক যান তিনি।

হাজি সেলিমের একাধিক ঘনিষ্ট সূত্র গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। দেশ ছাড়ার আগে ওই দিন তিনি আজিমপুর কবরস্থানে কবর জিয়ারত করেন। একই দিন আশিক টাওয়ারে তাকে

লাগেজ কিনতে দেখা গেছে। সূত্র জানায়, আজিমপুর কবরস্থানে কবর জিয়ারত শেষে তিনি শাহজালাল বিমানবন্দরে যান। চিকিৎসার জন্য তিনি ব্যাংকক গিয়েছেন বলে তার ঘনিষ্ট একজন জানিয়েছেন।

এর আগে গত ২৫ এপ্রিল হাজী সেলিমের আইনজীবী সাঈদ আহমেদ রাজা জানিয়েছিলেন যে, তিনি ঈদুল ফিতরের পর বিচারিক আদালতে আত্মসমর্পণ করবেন। কিন্তু আত্মসমর্পণ না করেই তিনি গোপনে দেশত্যাগ করলেন। বর্তমানে অবৈধ সম্পদ অর্জনের মামলায় হাজী সেলিম জামিনে আছেন।

গত সপ্তাহে অবৈধ সম্পদ অর্জনের দায়ে হাজী মোহাম্মদ সেলিমের ১০ বছর কারাদণ্ড বহালের রায় নিম্ন আদালতে পাঠানো হয়েছে। হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখা থেকে এ সংক্রান্ত যাবতীয় নথি সোমবার বিচারিক আদালতে পাঠানো হয়।

এ বিষয়ে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) আইনজীবী খুরশিদ আলম খান বলেন, হাইকোর্টের রায় অনুযায়ী এখন থেকে ৩০ দিনের মধ্যে হাজী সেলিমকে নিম্ন আদালতে আত্মসমর্পণ করতেই হবে। অন্যথায় তার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করবেন আদালত। এরপর ওই রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করতে পারবেন তিনি। এছাড়া নিম্ন আদালতের দেওয়া সাজা হাইকোর্টে বহাল থাকায় হাজী সেলিম এমপি থাকার যোগ্যতা অনেক আগেই হারিয়েছেন।


Leave a Reply

Your email address will not be published.