একটা টি-শার্টের দাম ৬৫ হাজার ৫০০ টাকা!

একটা টি-শার্টের দাম ৬৫ হাজার ৫০০ টাকা!

ঈদ ঘিরে রাজধানীর প্রতিটি শপিংমল বা সুপারশপে জমজমাট কেনাকাটা। এ সুযোগে এক শ্রেণির অসাধু ব্যবসায়ী ক্রেতাদের কাছ থেকে হাতিয়ে নিচ্ছেন পণ্যের মাত্রাতিরিক্ত দাম।

রাজধানীর পল্টন এলাকার পলওয়েল সুপার মার্কেটের একটি দোকানে বিক্রি হচ্ছিল কিছু টি শার্ট। দোকানকর্মীরা জানান, এসব টি শার্ট ইংল্যান্ড থেকে আনা। প্রতিটির বিক্রয়মূল্য ৬৫ হাজার ৫০০ টাকা।

ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের আভিযানিক টিম ওই দোকানে গিয়ে আমদানি নথি চাইলে তা দেখাতে পারেননি দোকান মালিক। বলা হয়, লাগেজে করে এসব টি শার্ট লন্ডন থেকে আনা হয়েছে।

রোববার (১ মে) নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টে করা এক পোস্টে এমনটাই জানালেন ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ আব্দুল জাব্বার মন্ডল।

তিনি বলেন, গতকাল (শনিবার) রাজধানীর পলওয়েল সুপার মার্কেটে অভিযানের সময় এটা দেখলাম। দোকান থেকে বলা হলো টি শার্টগুলো লন্ডন থেকে নিয়ে আসা হয়েছে। এ রকম কথাবার্তা বলছে। প্রতিটি টি শার্টের গায়ে নির্ধারিত এমআরপি ৬৫ হাজার ৫০০ টাকা লেখা। ওদের কোনো জরিমানা করা হয়নি। তবে ঈদের পর দোকান কর্তৃপক্ষকে ডাকবো।

এর আগে গত শনিবার ভোক্তাদের সঙ্গে প্রতারণার অভিযোগে রাজধানীর আলমাস প্রিয় সুপারশপসহ আরও কয়েকটা প্রতিষ্ঠানকে ৮৫ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর। ওইদিন ধানমন্ডি এলাকার আলমাস প্রিয় শপ, জেনারেল স্টোরসহ কয়েকটি প্রতিষ্ঠানে অভিযান পরিচালনা করে ভোক্তা অধিদপ্তরের টিম। এসময় একটি দোকানে শার্টের দাম ১৯ হাজার ৫০০ টাকা বিক্রির জন্য প্রাইস ট্যাগ লাগানো দেখতে পাওয়া যায়।

এত বেশি দামের কারণ জানতে চাইলে দোকানের বিক্রয়কর্মী ভোক্তা অধিকারকে জানান, এসব শার্ট থাইল্যান্ড থেকে লাগেজে করে আনা। দোকানের লাইসেন্স নেই। তবে মালিক দেশের বাইরে গেলে এগুলো নিয়ে আসেন। পরে সেগুলোতে প্রাইস ট্যাগ লাগিয়ে বিক্রি করা হয়।


Leave a Reply

Your email address will not be published.