আপত্তিকর অবস্থায় প্রেমিকের সাথে স্ত্রী, অতঃপর স্বামী দেখালেন ভেলকি

আপত্তিকর অবস্থায় প্রেমিকের সাথে স্ত্রী, অতঃপর স্বামী দেখালেন ভেলকি

অন্যরকম: মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জ উপজেলার শমশেরনগর ইউনিয়নের দৌলতপুর গ্রামে গভীর রাতে আপত্তিকর অবস্থায় পেয়ে প্রেমিকসহ স্ত্রীকে হাতেনাতে আটক করে

পুলিশে দিয়েছেন স্বামী। বৃহস্পতিবার ভোররাতে অসামাজিক কার্যকলাপে জড়িত থাকায় পুলিশ তাদেরকে আটক করেছে। আটককৃতরা হলেন পতনউষার ইউনিয়নের ধুপাটিলা গ্রামের রাজা

মিয়ার ছেলে রিমন মিয়া ( ৩২) ও কামাল মিয়ার স্ত্রী শাবানা আক্তার (৩২)। পুলিশ ও স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার ভোরে দৌলতপুর এলাকায় ভাড়াটিয়া বাসায় স্বামীকে জিম্মি করে পাশের

রুমে শাবানা আক্তার প্রেমিকের সাথে অসামাজিক কার্যকলাপ করছিলেন। বিষয়টি জেনে স্বামী কামাল মিয়া স্থানীয়দের সহযোগিতায় হাতেনাতে আটক করে তাদেরকে পুলিশে দেন। জানা যায়, দুই

সন্তানের মা শাবানা আক্তার তার স্বামী কামাল মিয়ার সাথে সংসার চলাকালিন সময়ে প্রায় পাঁচ বছর ধরে প্রেমিকের সাথে প’রকীয়া করে আসছিলন। পরকীয়ায় আসক্ত আটককৃত শাবানা আক্তার জানান,

বাবার বাড়ি ধুপাটিলা গ্রামে থাকার সুবাধে রিমনের সাথে পরিচয় হয়। প্রায় সময় আমার সাথে যোগাযোগ করে গোপনে ঘরে আসা-যাওয়া করতো। এ বিষয়ে স্বামী কামাল মিয়া বলেন, আমি অনেক দিন ধরে তাদের পরকীয়ার সম্পর্কে জানতে পারি।

কিন্তু আমার স্ত্রী ও তার প্রেমিক মিলে তারা আমাকে জিম্মি করে রেখেছে। এ জন্য কাউকে কিছু বলতে পারিনি। বৃহস্পতিবার রাতে আমার ভাড়াবাসায় তারা আমাকে অত্যাচার করে অসামাজিক কাজে লিপ্ত হয়। সেই সময় আমি তাদের অগোচরে এলাকার লোকজনকে নিয়ে রাতে রুম থেকে স্ত্রী ও প্রেমিককে আটক করে স্থানীয় ইউপি সদস্যের সহযোগিতা পুলিশে তুলে দেই। শমশেরনগর পুলিশ ফাঁড়ির সহকারী উপপরিদর্শক (এ এস আই) বাবুল হোসেন জানান, রাতে এলাকাবাসী দুইজনকে ঘর থেকে আটক করে। অসামাজিক কার্যকলাপে লিপ্ত থাকার অভিযোগে তাদেরকে আটক করা হয়েছে।


Leave a Reply

Your email address will not be published.