এবার মুখ খুললেন রেলমন্ত্রীর সেই আত্মীয়


আলোচিত: রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজনের আত্মীয় পরিচয়ে বিনা টিকিটে ট্রেন ভ্রমণকাণ্ডে দেশব্যাপী তোলপাড়ের ঘটনায় গণমাধ্যমের অবস্থানে ক্ষুব্ধ মন্ত্রীর শ্বশুরকূলের আত্মীয় স্বজনরা।

রোববার (৮ মে) দুপুরে এই ঘটনার মূল অভিযোগকারী ও রেলমন্ত্রীর স্ত্রী শাম্মি আকতার মনির ভাগ্নে ইমরুল কায়েস প্রান্ত তদন্ত কমিটির সঙ্গে সাক্ষাতে এসে সংবাদকর্মীদের দেখেই ক্ষোভ প্রকাশ করে বিষোদগার করতে থাকেন।

এ সময় গণমাধ্যমকর্মীদের সরকারবিরোধী আখ্যায়িত করে গণমাধ্যমই বাংলাদেশের একমাত্র বিরোধী দল বলে মন্তব্য করেন। তিনি আরও বলেন, গত কয়েকদিন ধরে গণমাধ্যমকর্মীদের ফোনে বিভিন্ন প্রশ্নবাণে আমি ও আমার পরিবার বিরক্ত ও বিব্রত।

আমরা সামগ্রিক বিষয়টিকে ইতিবাচকভাবেই দেখছিলাম, অথচ সাংবাদিকরা সামান্য একটি বিষয়কে অহেতুক টানা হেঁচড়া করেছেন। সাংবাদিকদের উদ্দেশ্য করে তিনি আরও বলেন, আপনারা এই এ বিষয়টি নিয়ে বেশি বাড়াবাড়ি করছেন। যেটা না করলেও পারতেন।

আমি যা বলার তদন্ত কমিটিকে বলেছি। আপনাদের সঙ্গে আমার কোনো কথা নেই। এদিকে ঈশ্বরদী পৌরসভার নূর মহল্লায় ইমরুল কায়েসের বাড়ির এলাকায় গণমাধ্যমকর্মীরা সংবাদ সংগ্রহে গেলে তাদের উদ্দেশ্যে অশ্লীল ও অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকেন রেলমন্ত্রীর শ্বশুরকূলের লোকজন।

সেখানে উপস্থিত বাংলাভিশনের সংবাদকর্মী জিয়াউল হক রিপন বলেন, ওই মহল্লায় পৌঁছানোর পর পরই আমাদের উদ্দেশ্যে তেড়ে আসে কয়েকজন যুবকসহ এক নারী। এ সময় তাদের গালিগালাজের মুখে আমরা বাড়ির লোকজনের কথা না শুনেই ফিরে আসতে বাধ্য হই।

বৃহস্পতিবার রাতে খুলনা থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী সুন্দরবন এক্সপ্রেস ট্রেনে বিনা টিকিটে রেলমন্ত্রীর আত্মীয় পরিচয়ে ট্রেনে ওঠেন ইমরুল কায়েস প্রান্ত, হাসান ও ওমর নামের তিন যাত্রী। পথিমধ্যে টিকিট চেকিংয়ের সময় তাদের জরিমানা করলে রেলমন্ত্রীর স্ত্রী শাম্মি আকতার মনির ফোনে টিটিইকে সাময়িক বরখাস্ত করেন বিভাগীয় বাণিজ্যিক কর্মকর্তা (ডিসিও) নাসির উদ্দিন।

বিষয়টি নিয়ে গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হলে দেশব্যাপী তোলপাড় শুরু হয়। প্রথমে রেলমন্ত্রী নিজের আত্মীয় নন বলে দাবি করলেও বিনা টিকেটের যাত্রী ও অভিযোগকারী প্রান্তের মা ইয়াসমিন আক্তার নীপার গণমাধ্যমে দেওয়া বক্তব্যে ভ্রমণকারীরা রেলমন্ত্রীর স্ত্রীর ভাগনে ও মামাতো ভাইয়ের সম্পর্কের কথা প্রকাশ হয়। পরে রোববার সংবাদ সম্মেলনে ওই যাত্রীদের সঙ্গে রেলমন্ত্রীর আত্মীয়তার সম্পর্কের বিষয়টি স্বীকার করেন।


Leave a Reply

Your email address will not be published.