সিআইডি পুলিশের বাড়িতে আমরন অনশনে তরুণী, অতঃপর…

সিআইডি পুলিশের বাড়িতে আমরন অনশনে তরুণী, অতঃপর…

কুমিল্লায় স্বামীর স্বীকৃতির দাবিতে পুলিশ সদস্যের বাড়িতে অনশন করেছে এক তরুনী। আজ শুক্রবার (১৩ মে) সকালে কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার নারায়ণসার গ্রামে

সিআইডি পুলিশের সদস্য সোহেল রানার বাড়িতে ওই তরুনী অনশনে বসেন। অভিযুক্ত সোহেল রানা বরগুনা জেলা সিআইডি পুলিশে কর্মরত আছে বলে জানান ওই তরুনী।

ওই তরুনী অভিযোগ করে বলেন, ১০ বছর আগে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজে পড়ার সময় সোহেল রানার সঙ্গে পরিচয় হয়। এরপর থেকে তাদের যোগাযোগ ছিলো। তাদের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে প্রেমের সম্পর্ক চলতে থাকে।

১ বছর পূর্বে ঢাকা রামপুরা কাজী অফিসে ২ লাখ টাকা দেনমোহরে বিয়ে করেন তারা। এই বিয়ের সময় সোহেল রানা জয়পুরহাটে চাকরি করতো। এসময় জয়পুরহাটে একটি বাসা ভাড়া নিয়ে তারা স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে বসবাস শুরু করেন।

পরে ঢাকা ও সর্বশেষ দুই মাস পূর্বে বরগুনা এলাকায় একটি বাসা ভাড়া নেয়। গত ২৬ এপ্রিল সোহেল রানা স্ত্রীকে রেখে ভাড়া বাসা থেকে বের হয়ে এসে যোগাযোগ বন্ধ করে দেয়। এরপর থেকে সোহেল রানার সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারছিলো না ওই তরুনী।

সেই শুক্রবার সকালে স্ত্রীর স্বীকৃতির দাবিতে সোহেল রানার গ্রামের বাড়ীতে এসে অবস্থান নেয়। ওই তরুনী আরও জানান, ইতোমধ্যে সোহেল রানার আরও ৮ টি বিয়ের খবর তার কাছে এসেছে। এই বাড়িতে এসে জানতে পারেন সোহেল রানার প্রথম স্ত্রী এই বাড়িতে থাকেন, প্রথম স্ত্রীর একটি কন্যা সন্তান রয়েছে যার বয়স ১১ বছর।


Leave a Reply

Your email address will not be published.