সাংবাদিককে গালি, শাস্তির মুখোমুখি হচ্ছেন ইডেনের সুস্মিতা

সাংবাদিককে গালি, শাস্তির মুখোমুখি হচ্ছেন ইডেনের সুস্মিতা

নিউজ ডেক্স: বিবাহিত হয়েও ছাত্রলীগের পদ পাওয়ার বিষয়ে মন্তব্য জানতে চাইলে সাংবাদিককে গালিগালাজ করেন ইডেন মহিলা কলেজ ছাত্রলীগের নতুন কমিটির সহ-সভাপতি সুস্মিতা বাড়ৈ।

এ ঘটনার পর তাকে নিয়ে সমালোচনার ঝড় ওঠে। এবার তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নিতে যাচ্ছে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ। রোববার (১৫ মে) গণমাধ্যমকে এমনটি

জানিয়েছেন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয়। তিনি বলেন, সাংবাদিকের সঙ্গে এমন আচরণ কখনোই কাম্য নয়। আমরা তার এই কাজের সাপোর্ট দিচ্ছি না। আমরা তার বিরুদ্ধে অবশ্যই ব্যবস্থা নেব।

জয় আরও বলেন, সাংবাদিকদের বলবো এটা ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখতে। শুক্রবার (১৩ মে) ওই কমিটি ঘোষণা হয়। এরপর কমিটির বেশ কয়েকজনের নামে অভিযোগ আসে। সুস্মিতা বাড়ৈর বিরুদ্ধে প্রাপ্ত অভিযোগ অনুসারে,

২০১৮ সালের ১ জুলাই চিরঞ্জিৎ রায় নামে এক ব্যক্তিকে বিয়ে করেন সুস্মিতা। নোটারি পাবলিকের কার্যালয়ে তাদের দুজনের করা ‘হিন্দু বিবাহের হলফনামা’র একটি কপিও জাগো নিউজের হাতে এসেছে। ছাত্রলীগের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী বিবাহিত কেউ ছাত্রলীগের পদ পাওয়ার সুযোগ নেই।

এই অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে তা অস্বীকার করেন সুস্মিতা বাড়ৈ। তার বিরোধী পক্ষ এই হলফনামা বানিয়ে ছেড়ে দিয়েছে বলেও দাবি করেন তিনি। সুস্মিতা বাড়ৈ বলেন, এ ধরনের কাবিননামা নীলক্ষেতে গেলে একশ টাকা দিয়ে বানানো যায়। এসময় মামলার হুমকি দিয়ে এই নেত্রী বলেন, যদি কোনো সাংবাদিক আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগে নিউজ করে, আমি অবশ্যই সেই সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মামলা করবো।


Leave a Reply

Your email address will not be published.