অভিনেত্রী পল্লবীর রহস্যজনক মৃত্যু, আটক প্রেমিক- যা জানালো পুলিশ

অভিনেত্রী পল্লবীর রহস্যজনক মৃত্যু, আটক প্রেমিক- যা জানালো পুলিশ

বিনোদন: ভারতীয় বাংলা টেলিভিশনের অভিনেত্রী পল্লবী দে মারা গেছেন। প্রেমিক সাগ্নিক চক্রবর্তীর সঙ্গে তিনি যে ফ্ল্যাটে থাকতেন,

সেখান থেকেই তার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। পল্লবীর আকস্মিক মৃত্যুর খবরে শোকাহত তার সহকর্মীরা।
এদিকে মৃত্যুর ঘণ্টাখানেক আগেও নেটমাধ্যমে সক্রিয় ছিলেন পল্লবী।

গড়ফার ফ্ল্যাটে এই অভিনেত্রীকে ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার করেন তার সঙ্গী। এরপর তিনি পুলিশে খবর দেন। পুলিশ এসে পল্লবীর দেহ উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়।

অভিনেত্রীর পরিবারের দাবি, আ’ত্মহ’ত্যা নয়, খুন করা হয়েছে তাদের মেয়েকে। তবে নির্দিষ্ট কোনো নাম তাঁরা বলতে চাননি। ময়নাতদন্তের রিপোর্টের জন্য অপেক্ষা করছেন তারা।

ইতিমধ্যেই অভিনেত্রীর অস্বাভাবিক মৃত্যুতে মামলা করেছে পুলিশ। প্রশ্ন উঠছে, সম্পর্কের টানাপোড়েনের জেরেই কী এই মৃত্যু? এ ঘটনায় পল্লবীর প্রেমিককে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেছে পুলিশ। সাগ্নিক চক্রবর্তী একটি বেসরকারি সংস্থায় কাজ করেন।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তিনি পুলিশকে জানিয়েছেন, রোববার (১৫ মে) সকালে সিগারেট খেতে বাইরে গিয়েছিলেন তিনি। বাড়ি ফিরে দরজা ভেতর থেকে বন্ধ দেখতে পান। পরে দরজা ভেঙে ঘরের ভেতরে ঢুকে তিনি পল্লবীর ঝুলন্ত দেহ দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেন।

একটি সূত্র বলছে, প্রেমিকের সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয়েছিল পল্লবীর। কিন্তু অভিনেত্রীর ফেসবুক স্টোরিতে দেখা যায়, মৃত্যুর আঠারো ঘণ্টা আগেও তিনি প্রেমিক সাগ্নিকের সঙ্গে কলকাতা শহরে ঘুরে বেড়িয়েছেন। রাস্তায় দাঁড়িয়ে মোমোও খেয়েছেন তারা।

পুলিশ জানিয়েছে, এখন পর্যন্ত ঘরের ভেতর থেকে কোনো সুইসাইড নোট উদ্ধার হয়নি। মৃত্যুর কারণ এখনো স্পষ্ট না হওয়ায় প্রাথমিকভাবে আত্মহত্যার সম্ভাবনাও উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। আদৌ কথা-কাটাকাটি হয়েছে কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, ‘রেশম ঝাঁপি’, ‘কুঞ্জছায়া’, ‘আমি সিরাজের বেগমে’র মতো ধারাবাহিকে অভিনয় করে প্রশংসা কুড়িয়েছেন পল্লবী। বর্তমানে ‘মন মানে না’ নামে একটি ধারাবাহিকের মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করছিলেন তিনি।


Leave a Reply

Your email address will not be published.