খালেদা জিয়াকে পদ্মা নদীতে চুবিয়ে যদি ফের উঠানো যেত, প্রধানমন্ত্রীর এমন বক্তব্যের কড়া জবাব দিলেন রিজভী

খালেদা জিয়াকে পদ্মা নদীতে চুবিয়ে যদি ফের উঠানো যেত, প্রধানমন্ত্রীর এমন বক্তব্যের কড়া জবাব দিলেন রিজভী

আলোচিত: বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, শেখ হাসিনা জোর করে অবৈধভাবে ক্ষমতা দখল করেছেন। তিনি এখন নিজেকে প্রধানমন্ত্রী দাবি করেন।

তার কথাবার্তা তো একটু শালিন ও ভদ্র হওয়া দরকার। কিন্তু প্রধানমন্ত্রীর কথা যদি গুন্ডা-পান্ডা ও হিংস্র সন্ত্রাসীর মতো হয় তখন কেমন লাগবে? এটা তো ভালো লাগার কথা না।

তিনি বলেন, তাহলে দেশ কারা চালাচ্ছে? আমরা তো সব সময় বলছি এ দেশ লুটেরা ও মাফিয়ারা চালাচ্ছে। মাফিয়াদের কথা হলো তাই। আজকে পদ্মাসেতুর কথা বলা হচ্ছে। পদ্মাসেতু কি আপনার পৈতৃক টাকায় করেছেন?

কারো বাপের বাড়ি বা স্বামীর বাড়ির সম্পত্তি দিয়ে করেছেন? আমার আপনার প্রত্যেকের ট্যাক্সের টাকায় করেছেন। মোবাইলের রিচার্জের টাকা কথা বলার আগেই কেটে নেন। বৃহস্পতিবার (১৯ মে) বিকেলে নয়া

পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিচতলায় দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী মির্জা আব্বাসসহ অসুস্থ নেতাকর্মীদের আরোগ্য কামনায় আয়োজিত দোয়া ও মিলাদ মাহফিলে তিনি এসব কথা বলেন।

ঢাকা-৮ এবং ঢাকা-৯ নির্বাচনী এলাকার বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠন এ দোয়ার আয়োজন করে। দোয়া মাহফিলে উপস্থিত ছিলেন- ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির আহ্বায়ক আবদুস সালাম, স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক মীর সরফত আলী সপু, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সদস্য সচিব রফিকুল আলম মজনু, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবদলের খন্দকার এনামুল হক এনাম প্রমুখ।

‘খালেদা জিয়াকে পদ্মা নদীতে চুবিয়ে যদি ফের উঠানো যেত…’ প্রধানমন্ত্রীর এমন বক্তব্যের সমালোচনা করে রিজভী বলেন, আজকে আপনি সাবেক প্রধামন্ত্রী ও একজন প্রখ্যাত মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রী এবং বাংলাদেশের স্বাধীনতার ঘোষকের সহধর্মিণীকে নিয়ে যে মন্তব্য করেছেন তা তো পাড়া মহল্লার গুন্ডা-পান্ডা ও শীর্ষ সন্ত্রাসীদের কথা। আজকে আন্তর্জাতিক সম্মান অর্জনকারী ড. ইউনুসকে পদ্মা নদীতে চুবাতে চান! অথচ সেই ইউনুসকে বিশ্বের বহু রাষ্ট্র নিমন্ত্রণ দিয়ে সেতুসহ অন্যান্য স্থাপনা উদ্বোধন করেছেন।

তিনি বলেন, আজকে প্রধানমন্ত্রীর কথা যদি এ হয় তাহলে দেশের অন্যতম বৃহৎ লালন শাহ সেতু, কুমিল্লার গোমতী সেতু, যমুনা সেতু এসব করেছে তো বিএনপি। কর্ণফুলি পয়েন্টে সেতু তো করেছেন বেগম খালেদা জিয়া। তার আমলেই ভিত্তি ও উদ্বোধন। এখন যদি নিয়ম হয় আমার আমলে সেতু তাই আমি বিরোধীদের টুস করে ফেলে দেবো! তাহলে ওইসব সেতু যারা করেছে তারা ক্ষমতায় আসলে আপনাকে যদি টুস করে নদীতে ফেলে দেয়! সুতরাং প্রধানমন্ত্রী আপনি যে সিস্টেমের কথা বক্তব্যে বলেছেন তা নারী বিদ্বেষী বক্তব্য। তিনি দেশের একজন জনপ্রিয় সাবেক প্রধানমন্ত্রী। আর আপনি নিশিরাতের ভোটারবিহীন প্রধানমন্ত্রী। আপনি রাতের বেলায় ভোট করেন। আমি আপনার বক্তব্যের শুধু নিন্দা জানাবো না। ঘৃণা জানাচ্ছি।

মির্জা আব্বাসের আরোগ্য কামনা করে রিজভী বলেন, বিপদে আপদে দলের জন্য পাশে থেকে নেতৃত্ব দিয়ে নেতাকর্মীদের প্রেরণা দিয়ে দলকে এগিয়ে নিয়ে যান মির্জা আব্বাস। আমরা আল্লাহর কাছে প্রার্থনা করি তিনি যেন সবাইকে সুস্থ করে দেন।


Leave a Reply

Your email address will not be published.