চাকরি হারালেন মন্ত্রী-কন্যা, বেতনের সব টাকা ফেরতের নির্দেশ

চাকরি হারালেন মন্ত্রী-কন্যা, বেতনের সব টাকা ফেরতের নির্দেশ

মহাবিপাকে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মমতা সরকারের শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী পরেশ অধিকারী। কলকাতা হাইকোর্ট তাঁর কন্যা অঙ্কিতা অধিকারীকে চাকরি

থেকে বরখাস্ত করার নির্দেশ দিয়েছেন। একই সঙ্গে এ যাবৎ দেওয়া সমস্ত বেতনও ফেরত দিতে হবে বলে জানিয়েছেন হাইকোর্টের বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়।

তিনি জানিয়েছেন, প্রায় ৪১ মাসের বেতন দুই কিস্তিতে ফেরত দিতে হবে অঙ্কিতাকে। প্রথম কিস্তি দিতে হবে ৭ জুন। দ্বিতীয় কিস্তির তারিখ ৭ জুলাই।

ভারতীয় গণমাধ্যম জানিয়েছে, অঙ্কিতার বিরুদ্ধে বাবার প্রভাব খাটিয়ে অবৈধভাবে শিক্ষকতার চাকরি নেওয়ার অভিযোগ ছিল। অভিযোগ করেছিলেন ববিতা সরকার নামে এক এসএসসি পরীক্ষার্থী।

অঙ্কিতাকে চাকরি থেকে বরখাস্ত করার নির্দেশ দিয়ে আদালত জানিয়েছে, নিজেকে শিক্ষক হিসাবেও পরিচয় দিতে পারবেন না অঙ্কিতা। আদালতের নির্দেশ, তিনি আর ওই স্কুলে ঢুকতেই পারবেন না।

উল্লেখ্য, ২০১৭ সালের নভেম্বরে এসএসসি পরীক্ষার দ্বিতীয় মেধাতালিকায় অঙ্কিতার নাম ওঠে। অভিযোগ, প্রথম মেধাতালিকায় প্রথম ২০তে নাম না থাকা অঙ্কিতাকে দ্বিতীয় তালিকায় ‘অবৈধ’ ভাবে একেবারে প্রথমে নিয়ে আসা হয়।

ওই মেধাতালিকার ২০ নম্বরে যে এসএসসি পরীক্ষার্থীর নাম ছিল, তার থেকেও ১৬ নম্বর কম পেয়েছিলেন অঙ্কিতা। তার প্রাপ্ত নম্বর ছিল ৬১। যেখানে ২০ নম্বরে থাকা পরীক্ষার্থী ববিতার নম্বর ছিল ৭৭। অঙ্কিতার নাম মেধাতালিকায় ঢোকানোয় ববিতা চাকরির সুযোগ হারান।

সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা।


Leave a Reply

Your email address will not be published.