আর দেখা যাবে না প’র্নোগ্রাফির সাইট

আর দেখা যাবে না প’র্নোগ্রাফির সাইট

দেশে বর্তমানে ৩৩৪০ জিবিপিএস ব্যান্ডউইথ ব্যবহৃত হচ্ছে। এই পরিমাণ ব্যান্ডউইথের ডেটা চেক করার মতো ডিপিআই আমাদের ছিল না।

আগামী ১৫ জুনের পরে নতুন ডিপিআই বসানো হবে। সেই সময়ের পরে দেশ থেকে আর কোনো প’র্নোগ্রাফির সাইট,

জুয়ার সাইট দেখা যাবে না বলে জানিয়েছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। শুক্রবার ২৭ মে, ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ,

আইএসপিএবি এর প্রথম নেটওয়ার্কিং ল্যাব উদ্বোধনকালে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার এই তথ্য জানান।

মন্ত্রী বলেন, আমরা এর আগে ২২ হাজার পর্নোগ্রাফির সাইট ও ৬ হাজার জুয়ার সাইট বন্ধ করেছি। ডিপিআই মেশিনের সক্ষমতা না থাকার কারণে কিছু কিছু সাইট এখনেও দেখা যাচ্ছে। সেগুলো আর দেখা যাবে না।

বর্তমান সরকারের হাত ধরে দেশে টুজি থেকে ৫জি নেটওয়ার্ক এসেছে জানিয়ে মোস্তাফা জব্বার বলেন, আমি মনে করি অর্থনৈতিক বৈষম্যের চেয়ে কানেক্টিভিটির বৈষম্য অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ। এরইমধ্যে অর্থনীতির পুরো স্ট্রাকচারটা ডিজিটাল কাঠামোর উপর দাঁড়িয়ে যাওয়ায় এই বৈষম্যটা কমেছে।

অনুুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব ও বিপিসি কোঅর্ডিনেটর মো. আবদুর রহিম এবং আইএসপিএবি সভাপতি ইমদাদুল হক।উল্লেখ্য, ডিপিআই হল এক ধরনের ডেটা প্রসেসিং যা একটি কম্পিউটার নেটওয়ার্কের মাধ্যমে পাঠানো ডেটা বিশদভাবে পরিদর্শন করে এবং সেই অনুযায়ী সতর্কতা, ব্লক করা, রি-রাউটিং বা লগিং করার মতো পদক্ষেপ নিতে পারে।


Leave a Reply

Your email address will not be published.