সানাইয়ের স্বামী এই ব্যাংক কর্মকর্তাই কি তাহলে সেই সরকারের সাবেক প্রতিমন্ত্রী?

সানাইয়ের স্বামী এই ব্যাংক কর্মকর্তাই কি তাহলে সেই সরকারের সাবেক প্রতিমন্ত্রী?

সানাইয়ের কথা মনে আছে তো? সার্জারির মাধ্যমে স্তন বড় করে যিনি দেশজুড়ে আলোচিত হয়েছিলেন। হয়েছিলেন সমালোচিত। জি হ্যা, সেই অভিনেত্রী সানাই মাহবুবের কথাই বলছি।

বহুদিন পর ফের তিনি আলোচনায়। সৌজন্যে তার বিয়ে। অনেকটা গোপনে মালাবদল করেছেন এই ভাইরাল অভিনেত্রী। এছাড়া পরিবার নিয়ে সারা বছর ঢাকায় থাকলেও সানাইয়ের বিয়েটা হয়েছে

তাদের গ্রামের বাড়ি নীলফামারী শহরের বাবু পাড়ায়। তার আগে হয়েছে গায়ে হলুদের অনুষ্ঠান। একজন ব্যাংকারকে বিয়ে করেছেন অভিনেত্রী। নাম আবু সালেহ মুসা। তিনি ঢাকায় একটি বেসরকারি ব্যাংকে কর্মরত।

এদিকে সানাই মাহবুবের বিয়ের খবর সোশ্যাল-মিডিয়ায়-ভাইরাল হওয়ার সাথে সাথেই নেটিজেনরা একটি বিষয় নিয়ে ব্যাপক আলোচনা শুরু করে দিয়েছে। যে বিষয়টি হলো সানাই মাহবুব এর স্বামী এই ব্যাংক কর্মকর্তাই কি তাহলে সেই সরকারের সাবেক প্রতিমন্ত্রী?

এখন অনেকের মনে প্রশ্ন আসতে পারে, সরকারের সাবেক প্রতিমন্ত্রী মানে? আর কেনইবা এখানে প্রতিমন্ত্রীর নাম আসবে। প্রকৃতপক্ষে ঘটনাটি হচ্ছে ২০১৯ সালে সাবেক এক মন্ত্রীর সঙ্গে বাগদান সেরে নতুন আলোচনার জন্ম দিয়েছিলেন সানাই। অভিনেত্রী নিজেই এ কথা বিভিন্ন জায়গায় প্রচার করেছিলেন যে, তিনি সাবেক এক মন্ত্রীর বউ হতে চলেছেন। তবে বেশ পুরোনো সেই কথাটি এখন অনেকটাই আড়ালে চলে গিয়েছিল। তবে সানাই মাহবুবের বিয়ের সংবাদটি ভাইরাল হতেই সবার মনে প্রশ্ন আসে তাহলে সেই সাবেক প্রতিমন্ত্রী কই? এই ব্যাংক কর্মকর্তাই কি তাহলে সেই সরকারের সাবেক প্রতিমন্ত্রী? যদিও এমন প্রশ্ন গুলো নেটিজেনরা করেছে মজা তামাশা হিসেবে। এছাড়াও নেটিজেনরা সানাই মাহবুব ও তার স্বামীকে নিয়ে বিভিন্ন হাস্যরসিক মন্তব্য করেছেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

তবে জানা যায়, সানাইয়ের স্বামীর বাড়িও নীলফামারী জেলার কিশোরগঞ্জ উপজেলার বাহাগিলি ইউনিয়নের দক্ষিণ দুরকুঠি এলাকায়। শুক্রবার পারিবারিক আয়োজনে সানাই মাহবুব ও আবু সালেহ মুসা বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন।


Leave a Reply

Your email address will not be published.