বিমানবন্দরে আটকে রাখা হয়েছে মির্জা আব্বাসকে

বিমানবন্দরে আটকে রাখা হয়েছে মির্জা আব্বাসকে

রাজনীতি: হযরত শাহজালাল (রহ.) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে প্রায় দেড় ঘণ্টা যাবৎ আটকে আছেন বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য, সাবেক মন্ত্রী ও ঢাকার সাবেক মেয়র মির্জা আব্বাস।

চিকিৎসা শেষে দেশে ফিরলে তাকে বিমানবন্দর ইমিগ্রেশন বিভাগে আটকে রেখেছে বলে অভিযোগ করেছেন তার স্ত্রী আফরোজা আব্বাস। আফরোজা আব্বাস বলেন, শুক্রবার (১০ জুন)

সন্ধ্যা ৬টা ১০ মিনিটে বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইটে তাকে নিয়ে পরিবারের সদস্যরা সিঙ্গাপুর থেকে ঢাকায় অবতরণ করেন। এরপর ইমিগ্রেশন কর্তৃপক্ষ তাদের পরিবারের সবার পাসপোর্ট নিয়ে আটকে রাখে।

প্রায় দেড় ঘণ্টা যাবৎ তারা বিমানবন্দরে বসে আছেন। ইমিগ্রেশন কর্তৃপক্ষ কী বলছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, উপরের নির্দেশে আটকে রাখা হয়েছে বলে জানিয়েছে।

আফরোজা আব্বাস বলেন, প্রতিবারই আমাদের বিমানবন্দরে হেনস্তা করা হয়। গত ২৪ মে সিঙ্গাপুর যাওয়ার দিন দীর্ঘ সময় আটকে রাখার পরে যেতে দেওয়া হয়েছিল। আগে যাওয়ার সময় করতো এখন আসার সময়ও করছে। তাদের সঙ্গে রয়েছে বড় ছেলে মির্জা ইয়াসের আব্বাস ও ছোট ছেলে মির্জা আজান।

পেটের পীড়ায় ভোগার পরে গত ১৭ মে মির্জা আব্বাসকে শ্যামলীর বাংলাদেশ স্পেশালাইজড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অবস্থার উন্নতি না হওয়ায় তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য গত ২৪ মে সিঙ্গাপুরে নেওয়া হয়। আগের চেয়ে শারীরিক অবস্থার উন্নতি হওয়ায় দেশে ফেরেন মির্জা আব্বাস।


Leave a Reply

Your email address will not be published.