বাবা-ছেলের প্রতারণার শিকার কলকাতার অভিনেত্রী!

বাবা-ছেলের প্রতারণার শিকার কলকাতার অভিনেত্রী!

বিনোদন: নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলনের গল্প নিয়ে শুক্রবার (১০ জুন) মুক্তি পেয়েছে শাপলা মিডিয়া প্রযোজিত নতুন সিনেমা ‘বিক্ষোভ’।

এই ছবিতে গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছেন ওপার বাংলার উদীয়মান নায়িকা শুভশ্রী কর। এতে নায়কের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন প্রযোজক সেলিম খানের পুত্র শান্ত খান।

এছাড়া গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে আছেন কলকাতার জনপ্রিয় অভিনেত্রী শ্রাবন্তী চ্যাটার্জি। শামীম আহমেদ রনী পরিচালিত ‘বিক্ষোভ’ সিনেমাটি ৩৫টি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেয়েছে। মুক্তির পর থেকে দর্শকের তেমন সাড়া পাচ্ছে না সিনেমাটি।

এরই মধ্যে নতুন বিতর্ক তৈরি হয়েছে ছবিটি নিয়ে। এই সিনেমার মূল নায়িকা কলকাতার শুভশ্রী কর। কিন্তু পোস্টার, ট্রেলার কিংবা প্রচার-প্রচারণার কোনো মাধ্যমেই তাকে গুরুত্ব দেওয়া হয়নি। এ নিয়ে ক্ষোভ ও হতাশা প্রকাশ করেছেন তিনি।

তিনি বলেন, আমি আসলে জানি না কেনো আমাকে ছবি পোস্টারে, বিলবোর্ডে রাখা হয়নি। আমি তো এই ছবিতে শান্তর নায়িকা। নায়িকার কি পোস্টারে ছবি থাকার কথা না?

বাংলাদেশে প্রথম কাজ করেই বাজে অভিজ্ঞতা হয়েছে জানিয়ে শুভশ্রী বলেন, প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে আমার সঙ্গে কেউ কথাও বলেননি। আমি বুঝতে পারছি না, আমার সঙ্গে এমন কেন হলো? আমি একটা গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে কাজ করেছি। অথচ আমার ছবিই কোথাও রাখা হয়নি। বিষয়টি ভেবে খুব খারাপ লাগছে। বাংলাদেশে প্রথম কাজ করলাম প্রথম কাজেই বাজে অভিজ্ঞতা হলো।

সিনেমাটির পোস্টারে শান্ত খানের সঙ্গে রাখা হয়েছে শ্রাবন্তীকে। বিভিন্ন বিলবোর্ডেও আছেন তারা দু’জন। কিন্তু মূল নায়িকা শুভশ্রী নেই কোথাও! শুধু তাই নয়, সিনেমা মুক্তি উপলক্ষে শিল্পীদের ভিডিও বার্তা প্রচার করা হয়েছে। শুভশ্রীর কাছ থেকে সেই ভিডিও বার্তাও নেয়নি শাপলা মিডিয়া। শুধু তাই নয়, সিনেমাটিতে অভিনয়ের জন্য পূর্ণাঙ্গ পারিশ্রমিকও দেওয়া হয়নি শুভশ্রীকে। কেবল চুক্তি স্বাক্ষরের সময় কিছু টাকা দেওয়া হয়েছিল। এরপর বারবার যোগাযোগ করেও বাকি অর্থ পাননি এ তরুণ নায়িকা। টাকা চাওয়ার কারণেই নাকি তার ওপর ক্ষেপেছেন নির্মাতা ও প্রযোজক। সেজন্য ইচ্ছাকৃতভাবে তাকে আড়াল করে রেখেছেন তারা।


Leave a Reply

Your email address will not be published.