আগে সরকার পতন, পরে ইসি নিয়ে ভাববে বিএনপি

আগে সরকার পতন, পরে ইসি নিয়ে ভাববে বিএনপি

বর্তমান সরকারের পতন ঘটনানোর পর বিএনপি নির্বাচন কমিশন নিয়ে ভাববে বলে জানিয়েছেন দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়।

তিনি বলেন, এই মুহূর্তে নির্বাচন কমিশন নিয়ে আমাদের কোনো ভাবনা নেই। আমরা আগে দখলদার সরকারের হাত থেকে দেশকে মুক্ত করব, এরপর নির্বাচন কমিশন নিয়ে ভাবব।

মঙ্গলবার (১৪ জুন) বিএনপি নেতা প্রয়াত গৌতম চক্রবর্তীর স্মরণসভায় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা জানান। রাজধানীর নয়াপল্টনে ভাসানী ভবনে জাতীয়তাবাদী কৃষক দলের উদ্যোগে এই স্মরণসভার আয়োজন করা হয়।

জিয়াউর রহমানের সঙ্গে নিজের সম্পর্কের মাপকাঠি তুলে ধরে বিএনপির কেন্দ্রীয় এই নেতা বলেন, বিএনপির জন্মের আগে থেকে জিয়াউর রহমানের সঙ্গে আমার সম্পর্ক। আমি বিএনপির জন্মের আগ থেকেই বিএনপি করি।

সেই সময়ে জিয়াউর রহমানের বাংলাদেশি জাতীয়তাবাদের দর্শন দেশের মানুষকে ঐক্যবদ্ধ করে জাগিয়ে তুলেছিল। বাংলাদেশি জাতীয়তাবাদের দর্শন দিয়ে জিয়াউর রহমান মুসলিম, হিন্দু,

বৌদ্ধ খ্রিস্টানসহ বাংলাদেশের মানুষের একটি পরিচয় দিয়েছিলেন। আজ সেই দর্শনে সব ধর্ম-বর্ণের মানুষ বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপির পতাকাতলে একত্রিত হয়েছে।

তিনি বলেন, জিয়াউর রহমান দেশের মানুষের প্রত্যাশা অনুযায়ী বহুদলীয় গণতন্ত্র, আইনের শাসন ও ভোটাধিকার ফিরিয়ে দিয়েছিলেন। তার পথ ধরে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া দীর্ঘ ৯ বছর গণতন্ত্রের জন্য লড়াই করে স্বৈরাচারমুক্ত করে দেশকে আবার গণতান্ত্রিক ধারায় ফিরিয়ে দিয়েছিলেন। তিনি এখনও গণতন্ত্রের জন্য লড়াই করছেন। আশা করি, আমাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নেতৃত্বে রাজপথের ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের মধ্য দিয়ে দেশে গণতন্ত্র, আইনের শাসন এবং ভোটাধিকার ফিরে আসবে।

খালেদা জিয়া প্রসঙ্গে গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, গণতন্ত্রের মাতা ভালো নেই। দেশবাসীর মতো আমরাও প্রত্যাশা করি সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী যেন সীমিত চিকিৎসার মধ্যে সুস্থ হয়ে ওঠেন। এ জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া চাই।


Leave a Reply

Your email address will not be published.