নালিশ তো আমি দেইনি, ওনারা দিচ্ছেন: কায়সার

নালিশ তো আমি দেইনি, ওনারা দিচ্ছেন: কায়সার

কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচনের স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী নিজাম উদ্দিন কায়সার বলেছেন, নালিশ তো আমি দেইনি, ওনারা (আরফানুল হক রিফাতের পক্ষ) দিচ্ছেন।

বুধবার রানীর দীঘির পাড় ভিক্টোরিয়া কলেজিয়েট স্কুল কেন্দ্রে ভোট দিয়ে বেরিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন। নিজাম উদ্দিন কায়সার বলেন, আমরা নালিশ করি না,

উনি (আরফানুল হক রিফাত) করেন। সেটা সবাই দেখে। গতকাল তো তিনি অসহায়ত্ব অনুভব করলেন যে নির্বাচন কমিশন নাকি নিজেদের ইমেজ রক্ষার জন্য ওনাকে জবাই করে দিছে। ওনাদের যে জনসমর্থন নাই এটা আচ

করতে পেরেই তিনি নির্বাচন কমিশনের ওপর দোষ চাপিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করছেন। নালিশ তো আমি দেইনি, ওনারা দিচ্ছেন। স্বতন্ত্র এই মেয়র প্রার্থী বলেন, আমি যেটা শুনতে পাচ্ছি, সংখ্যা কমিয়ে একটি রুমে দুটি বুথ করা হয়েছে।

আমার এজেন্ট তো দুইটা বুথেই থাকবে। কিন্তু থাকতে দিচ্ছে না। আবার শুনতে পাচ্ছি দুই-একটি কেন্দ্রের যে সীমানা, এর কাছাকাছি আমাদের লোকজনকে থাকতে দিচ্ছে না। কিন্তু নৌকার লোকজনকে থাকতে দিচ্ছে।

নির্বাচনের পরিবেশ সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, পুরো পরিবেশ দেখার পরে আপনাদের জানাবো। আসার পথে দেখেছি ভোটাররা কেন্দ্রে আসছেন। এই লক্ষণটাকে আমি ভালো বলব। কারণ আমি তাদের পরিবর্তনের স্বপ্ন দেখিয়েছি।

আমি বিশ্বাস করি, তার ভোট কেন্দ্রে আসার জন্য জনগণকে আমিই বেশি উদ্বুদ্ধ করেছি। তারা যেহেতু ভোটকেন্দ্রে আসছেন, আমি মনে করি পরিবর্তনের পক্ষে তারা রায় দিচ্ছেন। আশা করি তাদের এই রায়ে আমার ঘোড়া প্রতীকের জয় হবে ইনশা আল্লাহ।

ইভিএমের বিষয়ে কায়সার বলেন, বুঝতে সমস্যা হওয়ায় ইভিএম নিয়ে বয়স্কদের কিছুটা আপত্তি রয়েছে। এইটা একটু ধীরগতিতে হচ্ছে। আমরা বিভিন্ন জায়গা থেকে খবর পাচ্ছি, ভোটাররা লাইনে আছেন, কিন্তু ধীরগতিতে ভোট হচ্ছে। কিন্তু একটা লক্ষণ ভালো যে ভোটাররা কেন্দ্রে আসছেন।


Leave a Reply

Your email address will not be published.