উদ্ধারের পর যা বললেন আটকেপড়া সেই শিক্ষার্থীরা (ভিডিও)

উদ্ধারের পর যা বললেন আটকেপড়া সেই শিক্ষার্থীরা (ভিডিও)

সিলেটের সুনামগঞ্জে ঘুরতে গিয়ে বন্যার কবলে আটকেপড়া ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ২১ শিক্ষার্থীসহ অন্যদের সেনাবাহিনীর

সহায়তায় সুরমা নদীর চর থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। রোববার (১৯ জুন) সকালে এ তথ্য জানিয়েছেন আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তর (আইএসপিআর)।

রোববার (১৯ জুন) সকাল পর্যন্ত তারা তীরেই অবস্থান করেন। পরে সকাল সাড়ে ৮টার দিকে সেনাবাহিনীর একটি দল গিয়ে তাদের উদ্ধার করে ক্যান্টনমেন্টের উদ্দেশে রওনা দেয়।

নদীতে আটকেপড়া ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষার্থী শোয়াইব আহমেদ সংবাদমাধ্যমকে জানান, আমরা গতকাল দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে

দোয়ারাবাজার এলাকার একটি ফেরিঘাটে আশ্রয় নিয়েছিলাম এবং সকাল পর্যন্ত সেখানেই অবস্থান করেছিলাম। সকাল ৮টার পর সেনাবাহিনী আমাদের উদ্ধার করতে আসে।

এখন আমরা গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের ২১ জন একটি নৌযানে আছি। আর বাকি যারা আটকে পড়েছিলেন, তারা আলাদা আলাদা লঞ্চে যাচ্ছেন। আরেক ঢাবি শিক্ষার্থী সাদেকুর রহমান সানী বলেন, গতকাল রাত ১১টা থেকে আটকে পড়েছিলাম। সেনাবাহিনী এসে উদ্ধার করেছে। আল্লাহ ভরসা।
আরেক শিক্ষার্থী বলেন, সবাইকে নিয়ে ভালোভাবে চলে এসেছি। আল্লাহ ভরসা। জানা গেছে, গতকাল শনিবার দুপুর ২টার দিকে ‘কপোতাক্ষ অনির্বাণ’ নামের লঞ্চে করে ঢাবির গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের ২১ জন, ফার্মেসি বিভাগের ১৭ জন, জামালপুর শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজের বেশ কয়েকজন শিক্ষার্থীসহ প্রায় ১১০ জনকে নিয়ে জেলা পুলিশ লাইন্স থেকে সিলেট শহরের দিকে রওনা দেন। কিন্তু, হঠাৎ লঞ্চের ইঞ্জিন নষ্ট হয়ে যাওয়ায় রাত সাড়ে ৮টার দিকে সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজার-সংলগ্ন সুরমা নদীর চরে আটকা পড়েন। প্রচণ্ড বৃষ্টি, বাতাস আর নদীর ঢেউ তাদের বিপদগ্রস্ত করে ফেলে।

সেই ভিডিও দেখতে এখানে ক্লিক করুন


Leave a Reply

Your email address will not be published.