দুই সন্তানসহ নদীতে ঝাঁপ দিলেন মা

দুই সন্তানসহ নদীতে ঝাঁপ দিলেন মা

গাজীপুরের কাপাসিয়ায় শীতলক্ষ্যা নদীতে দুই কন্যা সন্তানসহ মা নদীতে ঝাঁপ দিয়েছেন। এ ঘটনায় এক শিশুকন্যাকে স্থানীয় জেলেরা উদ্ধার করতে পারলেও অপর শিশুসহ মা নিখোঁজ রয়েছেন।

রোববার (১৯ জুন) বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে টঙ্গী ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের সাত সদস্যের ডুবুরিদল শীতলক্ষ্যা নদীতে নিখোঁজ মা-মেয়েকে উদ্ধারের তৎপরতা শুরু করেন।

এর আগে একই দিন দুপুর দেড়টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। নিখোঁজ ওই নারী কাপাসিয়া ইপজেলার বিবাদীয়া গ্রামের মৃত আব্দুল মালেকের স্ত্রী আরিফা খাতুন (৪০) ও তার মেয়ে মুর্শিদা (৭)।

অপর শিশুকন্যা তাহমিনাকে (৯) স্থানীয় জেলেরা জীবিত উদ্ধার করেছেন। প্রত্যক্ষদর্শী ও টঙ্গী ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের ডুবুরি দলের লিডার ইদ্রিস আলী জানান, আরিফা খাতুন নামে

ওই নারী তার বাড়ির অদূরে সিংহশ্রী ব্রিজ থেকে দুই কন্যাসহ শীতলক্ষ্যা নদীতে ঝাঁপ দিয়েছেন। এ সময় শিশু তাহমিনা স্থানীয় জেলেদের মাছ ধরার জাল ধরে রাখে। পরে জেলেরা শিশুটিকে উদ্ধার করে।

তবে মা ও অপর শিশুকে খুঁজে পাওয়া যায়নি। নিখোঁজ নারীর প্রতিবেশী মমতাজ উদ্দিন ও আবুল হাশেম জানান, নারায়ণগঞ্জে ওই নারীর বিয়ে হয়েছিল। তার স্বামীর মৃত্যুর পর দুই শিশুকন্যাসহ বাবার বাড়ি ফিরে আসে।

স্বামীর রেখে যাওয়া টাকার লভ্যাংশ দিয়ে ওই নারী সংসার চালাত। পারিবারিক বিষয় নিয়ে মাঝেমধ্যে স্বজনদের সঙ্গে নারীর বাগবিতণ্ডা হতো। ধারণা করা হচ্ছে পারিবারিক কলহ থেকে সে নদীতে ঝাঁপ দিয়েছে।


Leave a Reply

Your email address will not be published.