প্রবাসী জামাইকে নিয়ে ঘরে ফেরা হলো না শ্বশুরের, না ফেরার দেশে চলে গেলেন ৩ জন

প্রবাসী জামাইকে নিয়ে ঘরে ফেরা হলো না শ্বশুরের, না ফেরার দেশে চলে গেলেন ৩ জন

ঢাকার নবাবগঞ্জে একটি প্রাইভেটকার নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে পিলারের সঙ্গে ধাক্কা লেগে

চালকসহ ৩ জন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও তিনজন। রোববার (১৯ জুন) ভোর ৫টার

দিকে নবাবগঞ্জে বাগমারা এলাকায় প্যারাগন হাসপাতালের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থলে যাওয়া নবাবগঞ্জ থানার এসআই

আলমগীর হোসেন টেলিফোনে জানান, পিলারের সঙ্গে ধাক্কা লেগে ঘটনাস্থলেই আবুল কাশেম (৫০) ও ফারাহানা (৮) নামে দুজন নিহত হন।

গুরুতর আহত অবস্থায় চালক মনির খান বিল্লালকে (৩৫) ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে ভর্তি করলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

আহতরা হলেন- প্রবাসী লাভলু, তার স্ত্রী রেখা (২০), রেখার বড় বোনের মেয়ে ফাহিমা (৫)। এরা সবাই ঢাকার দোহার উপজেলার রায়পাড়া গ্রামের বাসিন্দা। স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, দোহার উপজেলার রায়পাড়া গ্রামের আবুল কাসেম নিজস্ব প্রাইভেটকার নিয়ে মেয়ে রেখা, তার বড় মেয়ের ঘরের দুই নাতনি ফারহানা ও ফাহিমাকে নিয়ে অপর মেয়ের জামাই প্রবাসী লাভলুকে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে আনতে যান। রোববার ভোরে বিমানবন্দর থেকে বাড়ি ফেরার পথে ঢাকা বান্দুরা সড়কের নবাবগঞ্জ উপজেলার প্যারাগন হাসপাতালের সামনে এলে চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলেন।

এতে গাড়িটি একটি ইলেক্ট্রিক খুঁটির সঙ্গে ধাক্কা খায়। এসময় উপস্থিত লোকজন এগিয়ে এসে আহতদের উদ্ধার করে নবাবগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে দায়িত্বরত চিকিৎসক আবুল কাসেম ও ফারহানাকে মৃত ঘোষণা করেন। গুরুতর আহত অবস্থায় চালক মনির খান বিল্লালকে ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে ভর্তি করলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।


Leave a Reply

Your email address will not be published.