সিলেটে কাটা হয়েছে সড়ক, রাজধানীতেও বন্যা সতর্কতা: মন্ত্রী

সিলেটে কাটা হয়েছে সড়ক, রাজধানীতেও বন্যা সতর্কতা: মন্ত্রী

সিলেট ও সুনামগঞ্জে বন্যার পরিস্থিতি কিছুটা উন্নতি করার জন্য জেলার কয়েকটি রাস্তা কেটে ফেলা হয়েছে,

যাতে সেখানকার পানি যাতে সরে যেতে পারে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় সরকারমন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম। রোববার

(১৯ জুন) সচিবালয়ে এক আন্তঃমন্ত্রণালয় সভার শুরুতে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে তিনি এ কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, ‘বন্যাকবলিত এলাকায় কিছু রাস্তা কাটার প্রয়োজন পড়েছে। সিলেটের মেয়র সেটা জানিয়েছেন। এতে বন্যার পানি সহজে নেমে যাচ্ছে।

কোথাও প্রয়োজন হলে আরও রাস্তা কেটে ফেলা হবে।’ রাজধানীতেও বন্যা সতর্কতা আছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় সরকার মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম।

তিনি বলেন, ‘বন্যা হবে সেই সতর্কতা আছে কিন্তু কী অবস্থায় যাবে বা বন্যা কতটুকু হবে সেই পূর্বাভাস কোনো প্রতিষ্ঠান এখনো দেয়নি।’ তিনি বলেন, ‘সিটি করপোরেশনের কাছে খালের দায়িত্ব হস্তান্তর এবং অবৈধ দখলমুক্ত করার সুফল মিলছে। ঢাকার জলাবদ্ধতা কমেছে। ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনের কাছে ইতোমধ্যে ২৬টি খাল হস্তান্তর করা হয়েছে। দক্ষিণ সিটি সাড়ে ৬ একর জমি এবং উত্তর সিটি ২৫ একর জায়গা দখলমুক্ত করেছে খালের।’

এর আগে শনিবার বিকেলে রাজধানীর মিন্টো রোডের সরকারি বাসভবনে সংবাদ সম্মেলনে প্রয়োজনে সড়ক কাটার নির্দেশনা দেন মন্ত্রী তাজুল ইসলাম। তিনি বলেছিলেন, ‘বন্যার পানি অপসারণের জন্য কোথাও কোনো রাস্তা বাধা হয়ে দাঁড়ালে তা কেটে দেয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী নির্দেশ দিয়েছেন। স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরকে সে অনুযায়ী নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।


Leave a Reply

Your email address will not be published.